(দিনাজপুর২৪.কম) কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় ভারতের বিশেষায়িত নিরাপত্তা বাহিনীর উপর পাকিস্তানি জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদের হামলায় দু’দেশের মধ্যে ক’দিন ধরেই চলছে উত্তেজনা। আশঙ্কা করা হচ্ছিল, ওই জঙ্গি হামলার প্রতিশোধ নিতে যেকোনো মুহূর্তে পাকিস্তানে আক্রমন চালাতে পারে ভারত। অন্যদিকে হামলা চালালে পাকিস্তানও বসে থাকবে না বলে পাল্টা হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল দেশটি। এরই জেরে মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে পাকিস্তানের বালাকোট শহরে জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদের (জেইএম) প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অভিযান চালায় ভারতীয় বিমান বাহিনী। আর রাতভর জেগে এই অভিযানের বিষয়ে নজর রেখেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, তিনমন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে এই অভিযানের তদারকি করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিভাবে অভিযানটি চালানো হবে এবং কখন কী পদক্ষেপ নেয়া হবে, তার সবটাই দেখছেন তিনি। খবরে বলা হয়, অভিযানের পরিকল্পনার সময়েও প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। পাশাপাশি অভিযান চলাকালে তিনি ওয়াররুমেও ছিলেন বলে জানা যায়। ২০ মিনিট ধরে চলা এই অভিযানে প্রায় ৩০০ জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। তবে এতে কোনো হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে পাল্টা দাবি করেছে পাকিস্তান। অন্যদিকে এই অভিযানের পর মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।  বৈঠকে অভিযানটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হবে। একই দিন সকালে দিল্লিতে মন্ত্রিপরিষদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন মোদী। -ডেস্ক