(দিনাজপুর২৪.কম) বৃটেনের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে সম্প্রতি ইন্টারনেটে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি বর্তমানে বৃটিশ রাজ সিংহাসনের মুকুট বহন করছেন। ফলে দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায় খবরটি। কিন্তু বাকিমংহাম প্যালেস নিশ্চিত করেছে, ‘মহামান্য রাণী সম্পূর্ন সুস্থ রয়েছেন’। এর আগে করোনা শনাক্ত হন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। রাণীর বড় ছেলে প্রিন্স চার্লসও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাই প্রথম থেকেই আশঙ্কা করা হচ্ছিল, তাদের সংস্পর্শে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন কিনা রাণী! তবে তার মধ্যে এখনো করোনার কোনো উপসর্গ দেখা যায়নি। বর্তমানে রাণীর বয়স ৯৪ বছর।

এই বয়সে করোনার সংক্রমণ প্রায়ই জীবনঘাতী হয়ে উঠতে পারে। তার স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে বর্তমানে তাকে সুরক্ষিত কোথাও পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বাকিংহাম প্যালেস। তাকে আপাতত কয়েক সপ্তাহ এভাবেই রাখা হবে, যাতে তিনি কোনোভাবে করোনা সংক্রমিত না হন। যদিও বৃটেনে মহামারিটি ছড়িয়ে পড়ার পরেও তিনি বিভিন্ন রাজকীয় কর্মকান্ড পরিচালনা করে গেছেন। তাই ইতিমধ্যেই তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এমন আশঙ্কা দেখা দিয়েছে দেশটির নেটিজেনদের মধ্যে। আর তাই ইন্টারনেটে ভাসছে নানা গুজব। তাকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়ায় সেই গুজব আরো জোরালো হয়েছে। কিন্তু গুজবকে গুজব বলেই উড়িয়ে দিয়েছে বাকিংহাম প্রাসাদ। -ডেস্ক