Asaduzzaman-Khan-Kamal-dinajpur24
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ফাইল ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রকাশিত স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা তৈরি করতে মন্ত্রণালয়কে ৬০ কোটি টাকা দেয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বুধবার সচিবালয়ে নিজের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

গত ১৫ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ১০ হাজার ৭৮৯ ব্যক্তির নাম প্রকাশ করে সেটিকে রাজাকার ও স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা বলে উল্লেখ করে। আজ বুধবার সন্ধ্যায় সেই তালিকা প্রত্যাহার করে নেয় মন্ত্রণালয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রাজাকারদের এই তালিকা করার জন্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে ৬০ কোটি টাকা দেয়া হয়েছিল। সেই টাকা কোথায় খরচ হয়েছে তা জানতে চাইলে কামাল বলেন, এ বিষয়ে আমি মন্তব্য করতে চাই না। কারণ তিনি একজন সিনিয়র মন্ত্রী।

তিনি বলেন, দালাল আইনে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল তাদের নামের তালিকা আমরা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছিলাম। তবে এসব মামলায় যারা খালাস পেয়েছেন তাদের নামের তালিকাও নোট হিসেবে সঙ্গে যুক্ত করে দেয়া হয়েছিল। মন্ত্রী তালিকা চেয়েছেন, আমরা দিয়েছি। কিন্তু তা প্রকাশ করবেন কিনা তা আমাদের বলেননি।

গত ১৫ ডিসেম্বর ‘একাত্তরের রাজাকার, আলবদর, আলশামস ও স্বাধীনতাবিরোধী তালিকা প্রকাশ—প্রথম পর্ব’ শিরোনামে ১০ হাজার ৭৮৯ জনের নামের এই তালিকা প্রকাশ করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

তালিকা প্রকাশের পর দেখা যায়, জীবন বাজি রেখে যাঁরা যুদ্ধে গিয়েছিলেন, তাঁদের অনেকের নাম এ তালিকায় রয়েছে। আবার কুখ্যাত অনেক রাজাকারের নাম নেই এ তালিকায়। বিষয়টি নিয়ে সারা দেশে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

এর আগে আজ মানিকগঞ্জে এক সমাবেশে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক রাজাকারের তালিকায় ত্রুটির কথা স্বীকার করে দুঃখপ্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ওরা (বিএনপি-জামায়াত সরকার) ৩০ বছর ক্ষমতায় ছিল।

ক্ষমতায় থাকার সময় হয়তোবা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রাখা কাগজপত্র কারসাজি করে রাজাকারদের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধাদের নাম লিখে রেখেছে। এটা আমাদের কল্পনার বাইরে ছিল। সে কারণে ভুলটা হয়ে গেছে। আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।’