(দিনাজপুর২৪.কম) ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে কমপক্ষে ২৮ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরের এ দুর্ঘটনায় উল্টে পড়া গাড়ির নিচে চাপা পড়া রুবেল নামে এক যুবককে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি এমনভাবে গাড়ি চাপা পড়েছিলেন, যে তার বেঁচে ফেরা অলৌকিক মনে করছেন প্রতক্ষ্যদর্শীরা। তারা বলছেন, ‘রাখে আল্লাহ মারে কে’!

এদিকে আহতদের উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহতদের কয়েকজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- মহেশপুর উপজেলার শাহাবুদ্দিন (৫০), রুহুল আমিন (২৫), চম্পা খাতুন (৩৫), হরিণাকুণ্ডু উপজেলার শারমিন খাতুন (২৫), আতিক হাসান (৩০), সুবোধ (২৮), আতিয়ার (৮০), হাওয়া (১৬), রুবেল (৩০)।

বাসের আহত যাত্রীরা জানান, জীবননগর থেকে কালীগঞ্জের উদ্দেশ্যে আসার সময় যাত্রীবাহী সাজিম পরিবহন পাতিবিল ইটভাটা নামকস্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। তারা অভিযোগ করেন, এই যাত্রীবাহী বাসটি দ্রুতগতিতে চলছিল।

কালীগঞ্জ থানার এসআই আবুল খায়ের জানান, কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কালীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। -ডেস্ক