(দিনাজপুর২৪.কম)করোনা ভাইরাসের বিস্তার না কমলেও পবিত্র রমজান মাসে পাকিস্তানে মসজিদ খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। যদিও এ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে দেশটির চিকিৎসকরা।

জানা গেছে, করোনা ভাইরাসের কারণে পাকিস্তানে গত এক মাস ধরে বন্ধ ছিল মসজিদে জামাতে নামাজ আদায়। তবে রমজানের কথা মাথায় রেখে সরকার মসজিদ বন্ধের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। এদিকে করোনা প্রকোপের মধ্যে পাকিস্তানে মসজিদ খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও ইসলাম ধর্মের উৎপত্তিস্থল সৌদি আরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশে রমজানেও বন্ধ রাখা হয়েছে মসজিদে নামাজ।

পাকিস্তানের চিকিৎসকদের শীর্ষ সংগঠনগুলো দাবি করছে, যদি রমজানে মসজিদ খোলা হয় তাহলে আগামী মাসে পাকিস্তানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বহুগুণে বেড়ে যাবে।

পাকিস্তানের এ পর্যন্ত ১০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। যাদের মধ্যে ৭৯ শতাংশই লোকাল ট্রান্সমিশনের মাধ্যমে আক্রান্ত হয়েছেন। পাকিস্তানে আগামীকাল শনিবার থেকে রোজা শুরু হবে। -ডেস্ক