(দিনাজপুর২৪.কম) নারীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে কঠিন শাস্তির মুখোমুখি হচ্ছেন দুই ভারতীয় ক্রিকেটার। লকশয় থারেজা ও কুলদীপ যাদব নামের দুই ক্রিকেটারকে দিল্লি অনূর্ধ্ব-২৩ দল থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, গত ২৫ ডিসেম্বর কলকাতায় আসে খেলার জন্য দিল্লি অনূর্ধ্ব-২৩ দল। ওই রাতে হোটেলে উঠে বড় দিনের অনুষ্ঠানে এক নারীর সঙ্গে যৌন হয়রানিমূলক আচরণ করেন লকশয় থারেজা ও কুলদীপ যাদব। অনুষ্ঠানে যৌন হয়রানি করেই থামেননি তারা, রাতে হোটেলে থাকা ওই নারীর কক্ষের দরজায় গিয়ে টোকা দিয়েছেন।

ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে হোটেলের রিসেপশনিস্ট প্রথমে ব‌্যাপারটা অনূর্ধ্ব-২৩ দিল্লি কোচ হিতেশ শর্মা এবং ম‌্যানেজার অতুল মাহিন্দ্রাকে জানান। তারা বিষয়টি বিশ্বাস করতে না চাইলেও পরে হোটেলটির সিসিটিভি ফুটেজ দেখানো হয়। এ সিসিটিভি ফুটেজে তাদের বিরুদ্ধে করা অভিযোগের সত্যতা মেলে।

ঘটনার সত্যতা জানতে পেরে দিল্লি দল থেকে অভিযুক্ত ওই দুই ক্রিকেটারকে দল থেকে প্রত্যাহার করা হয়। পরে তাদের দিল্লি পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

দিল্লি দলের পক্ষে প্রথমে ঘটনাটি চেপে যাওয়ার চেষ্টা করা হলেও মুহূর্তেই তা জানাজানি হয়ে যায়। এ ঘটনাটি বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীকেও জানানো হবে বলে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার রাতে দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার সচিব বিনোদ তিহারা বলেন, ‘আমি পুরো ব‌্যাপারটা জানি না। কিছু কিছু কানে এসেছে। এটা ঠিক যে, দুজন ক্রিকেটারকে কলকাতা থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। শুনলাম তারা নাকি হোটেলে মাঝরাতে কার ঘরে নক করছিল। তবে আমরা যদি দেখি ক্রিকেটাররা দোষী, তা হলে বরখাস্ত করে দেব।’-ডেস্ক