(দিনাজপুর২৪.কম)  উপযুক্ত খাদ্যাভ্যাসে মানুষের দেহ ও মনকে রাখে প্রফুল্ল। অপরদিকে অপরিকল্পিত খাদ্যাভাসে দেহের ক্ষতি হয় প্রতিনিয়ত। কিছু কিছু খাবার আছে খুবই ভয়ংকর, যা আপনার বুদ্ধিমত্তাকে প্রতিনিয়ত কমিয়ে দিচ্ছে। তাই আপনার বুদ্ধিমত্তাকে সজীব রাখতে কিছু খাবার সম্পর্কে সচেতন হওয়া জরুরি এখনি। যেমন-
চিনি সমৃদ্ধ খাবার
অনেকেই মিষ্টি জাতীয় খাবার খেতে অনেক বেশি পছন্দ করেন। খাবারের পর একটু মিষ্টি না হলে যেন চলেই না। এমনকি বাচ্চারাও ক্যান্ডি এবং মিষ্টি অনেক বেশি পছন্দ করে। চিনি জাতীয় এ খাবারগুলোই আমাদের মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা অনেকাংশে কমিয়ে দেয়। গবেষকদের মতে ‘কোনো কিছু শেখার ক্ষমতা এবং স্মৃতিশক্তি নষ্ট করে দেয়ার ক্ষমতা রাখে এই চিনি ও ফ্রুক্টোজ। তাই বুদ্ধিমত্তা কমানো রোধে অধিক চিনি সমৃদ্ধ খাবার এড়িয়ে চলা ভালো।
ফাস্ট ফুড
মুখরোচক হওয়াই বেশির ভাগ মানুষ ফাস্ট ফুড খেতে পছন্দ করেন। এই ফাস্ট ফুড সত্যিই আমাদের মস্তিস্ক এবং বুদ্ধিমত্তার জন্য অনেক ক্ষতিকর। প্রায় ৪০০০ বাচ্চার ওপর গবেষণা করে ব্রিটিশ স্টাডিজ তাদের রিপোর্টে বলেন, ‘যে বাচ্চারা প্রায় প্রতিদিন এবং বেশিরভাগ সময় ফাস্ট ফুড খায় তাদের আইকিউ লেভেল একজন সাধারণ বাচ্চার তুলনায় অনেক কম’। তাই বাচ্চাদের পাশাপাশি বড়দেরও ফাস্ট ফুড খাওয়া থেকে বিরত থাকা উচিৎ।
পরিপাকযোগ্য চর্বিযুক্ত খাবার
পরিপাকযোগ্য চর্বিযুক্ত খাবার খেলেও মস্তিষ্কের চিন্তা করার ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। গবেষকরা দেখিয়েছেন, যারা পরিপাকযোগ্য চর্বিযুক্ত খাবার বেশি খান তাদের চিন্তাশক্তি ও স্মৃতিশক্তি যারা কম পরিপাকযোগ্য চর্বিযুক্ত খাবার খান তাদের তুলনায় অনেক কম।
টিনজাত খাবার
কর্মব্যস্ত জীবনে অনেকেই টিনজাত খাবারের উপর ভরসা করে থাকেন। কিন্তু এই খাবারগুলোতে উচ্চমাত্রার কৃত্রিম রঙ ও ফ্লেভার, চর্বি ও লবণ রয়েছে যা মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। ইউনিভার্সিটি অফ ব্রিস্টলের গবেষকরা বলেছেন, যারা এই ধরণের খাবার বেশি খান তাদের আইকিউ লেভেল অনেক নিচু থাকে। এমনকি এই খাবারগুলো দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও নষ্ট করে।