গোলান মালভূমি ইস্যুতে ট্রাম্পকে এরদোয়ানের কঠোর হুঁশিয়ারি। ফাইল ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) গত শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ভোররাতে ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন বাহিনীর বিমান হামলায় ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার লেঃ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি মারা যান। এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

রোববার (০৫ জানুয়ারি) তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানীর সঙ্গে ফোনালাপে জেনারেল সোলাইমানির মৃত্যুতে ব্যক্তিগতভাবে মর্মাহত হওয়ার কথা জানিয়ে শোক প্রকাশ করেন।

সৌদি সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়ার প্রতিবেদনে জানানো হয়, ইরানি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলাপকালে জেনারেল সোলাইমানির মৃত্যুকে তুর্কি প্রেসিডেন্ট ‘শাহাদাত’ আখ্যা দিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, শহীদ সোলাইমানির মৃত্যুতে আমি ব্যথা অনুভব করছি, একইসঙ্গে ইরানের জনগণ, প্রধান ধর্মীয় নেতা এবং প্রেসিডেন্টের ক্ষোভ ও শোক অনুমান করছি।
সোলাইমানির আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা নিয়েও ইরানি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলেন এরদোগান।

তিনি বলেন, ইরাকে অনুষ্ঠিত জেনারেল সোলাইমানির জানাজার দৃশ্য আমি দেখেছি, মানুষের জনস্রোত ইরাকেও তার জনপ্রিয়তার সাক্ষ্য দেয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এরদোগান বলেন, সোলাইমানিকে হত্যা করা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য চরম ভুল হয়েছে। এ অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের নগ্ন হস্তক্ষেপ নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার জন্য মারাত্মক ঝুঁকির কারণ হবে।
যেকোনো পরিস্থিতিতেই আঙ্কারা তেহরানের পাশে রয়েছে বলে রুহানীকে আশ্বস্ত করেন এরদোগান। -ডেস্ক