(দিনাজপুর ২৪.কম) নারীদের জন্য তৈরি এক ধরনের যৌনউত্তেজক ট্যাবলেট যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমতি পেয়েছে। ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) অনুমতি পাওয়া ট্যাবলেটকে অনেকেই ‘নারীদের ভায়াগ্রা’ বলে উল্লেখ করছেন।
ফ্লিব্যানসেরিন নামের ট্যাবলেটটি বাজারজাত করবে যুক্তরাষ্ট্রের স্প্রাউট ফার্মাসিউটিক্যালস। ওষুধটি তৈরি করেছে মূলত জার্মান কোম্পানি বোয়েরিংগার ইংগেলহাইম। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে এর প্রবেশাধিকার না থাকায় স্প্রাউট ফার্মা এটি আমদানি করছে।
সম্প্রতি এফডিএ’র উপদেষ্ঠা কমিটিতে ট্যাবলেটটি বাজারজাত করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। একই ধরনের ওষুধ এর আগে একাধিকবার এফডিএ’র অনুমতি লাভে ব্যর্থ হয়। কম কার্যকারিতার পাশাপাশি মাথা ঘোরা, মূর্ছা যাওয়া এবং বমিভাব এর মতো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণে ওষুধটির বাজারজাতকরণে বাধা দেয় এফডিএ।
স্প্রাউট ফার্মাসিউটিক্যালস এর দাবি, ‘ফ্লিব্যানসেরিন মেনোপোজপূর্ব অবস্থায় থাকা নারীদের যৌন মিলনে আগ্রহী করার ক্ষেত্রে কার্যকর। আর এর তেমন কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।’ ওষুধটি সেবনের যথেষ্ট যৌক্তিক কারণ রয়েছে প্রমাণের পর কেবল চিকিৎসকের পরামর্শেই নারীরা এটি ব্যবহার করতে পারবেন।
অনেক আগে থেকেই এ ধরনের ওষুধ বাজারজাত করণের পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে আসছিল যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি নারী অধিকার বিষয়ক সংগঠন। যুক্তরাষ্ট্রে পুরুষের জন্য এ ধরনের ওষুধ পাওয়া গেলেও নারীদের জন্য তেমন কোনো ওষুধ না থাকায় এফডিএ’র প্রতি লিঙ্গ বৈষম্যের অভিযোগও আনে তারা। সূত্র: বিবিসি