(দিনাজপুর২৪.কম) চাঁদাবাজিসহ বেশকিছু অভিযোগে ছাত্রলীগ থেকে পদচ্যুত হয়েছেন রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। একদিন আগেও যার নামে স্লোগান হতো এখন তার উল্টো চিত্র। আর সন্তানের এ অবস্থাকে পরিস্থিতির শিকার বলে মন্তব্য করেছেন তার পিতা। শোভন পরিস্থিতির শিকার, এমনটাই মনে করেন তার পিতা কুড়িগ্রাম  জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুন্নবী চৌধুরী। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমি আমার  ছেলেকে চিনি। সে এ ধরনের কাজ করতে পারে না। আসলে আমার ছেলে আগে থেকেই বোকা, সহজ-সরল।
তিনি আরো বলেন, শোভনের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের অনেক কিছুই সাজানো। শোভনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অনেকটা অতিরঞ্জিত, সাজানো ব্যাপার।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্প থেকে দুই কোটি টাকার বিষয়ে বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে আসলে শোভন কিছুই জানে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির সঙ্গে কথা বলার সময় রাব্বানী যেহেতু একটি প্রস্তাব দিয়েছিল, সেখানে শোভন উপস্থিত থাকায় হয়তো তার নামও এসেছে। কিন্তু রাব্বানী নিজেই বলেছে, শোভন কিছু জানে না।
আর অপসারনের সিদ্ধান্তের বিষয়ে বলেন, নেত্রী ভালো মনে করেছিলেন, তাই তাদের দায়িত্ব দিয়েছিলেন, পদে বসিয়েছিলেন। নেত্রী এখন মনে করছেন যে এদের দিয়ে আর ভালো চলবে না, তাই তাদের পদত্যাগ করতে বলেছেন। -ডেস্ক