(দিনাজপুর২৪.কম) ময়মনসিংহের নান্দাইলে অপহরণের পর মুক্তিপণের ৩০ লাখ টাকা না পেয়ে সাত বছরের শিশু ছেলে তাছিনকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে অপহরণকারীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। আটকৃতদের একজনের নাম শহিদুল (২০)। তবে বাকি দুই আসামির নাম জানায় এই পুলিশ সুপার।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, নান্দাইল উপজেলার আগ মুশুল্লী গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী কাইয়ুমের শিশু ছেলে তাছিন গত সোমবার বাড়ির আঙ্গিনা থেকে নিখোঁজ হয়। পরে তাছিনের বাবা তাকে অনেক খোঁজাখুজি করেও না পেলে ওইদিনই নান্দাইল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন।

সোমবার বিকেলে অজ্ঞাত পরিচয়ে মুঠোফোনে কাইয়ুমের কাছে ৩০ লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হলে বিষয়টি পুলিশ সুপারকে জানালে তিনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ডিবি পুলিশকে নির্দেশ দেন। পরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে মুঠোফোনের মালিককে সনাক্ত করে গত বুধবার রাতে অভিযান চালিয়ে একই গ্রামের তাহেরের ছেলে শহিদুলকে আটক করে ডিবি।

ডিবি পুলিশ জানায়, আটক শহিদুল হত্যার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে শহিদুলের বাড়ির পাশের একটি টয়লেটের সেফটি ট্যাংকীর স্লাব উঠিয়ে ভিতর থেকে তাছিনের বিকৃত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে হত্যায় জড়িত আরও দু’আসামিকে আটক করা হয়। -ডেস্ক