(দিনাজপুর২৪.কম) ফাঁসি দেওয়ার আগে পাকিস্তানের প্রাক্তন সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফের মৃত্যু হলে তার লাশ এনে তিন দিন ধরে ঝুলিয়ে রাখতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির আদালত।

প্রসঙ্গত, দেশদ্রোহিতার দায়ে ৭৬ বছর বয়সী পারভেজ মোশাররফকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে পাকিস্তানের কোর্ট। মোশাররফ চিকিৎসার জন্য দুবাইয়ে অবস্থান করছেন। সূত্র: দা ওয়াল।

বৃহস্পতিবার প্রশ্ন ওঠে, ফাঁসি দেওয়ার আগেই যদি মোশাররফের মৃত্যু হয়, তা হলে কী হবে? তখনই কোর্ট নির্দেশ দেয়, সে ক্ষেত্রে সংসদ ভবনের ঠিক উল্টো দিকে অবস্থিত ইসলামাবাদের ডি চৌকে তার মৃতদেহটি টেনে আনতে হবে। সেখানে তিন দিন ধরে ঝুলিয়ে রাখতে হবে।

পাকিস্তানের আইন বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই আদালতের এই নির্দেশ সংবিধানবিরোধী বলে মন্তব্য করেছেন।

এ রায়ে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী মোটেই সন্তুষ্ট হয়নি। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মোশাররফ যা-ই করে থাকুন, তিনি যে দেশপ্রেমিক সে কথা অস্বীকার করা যায় না। ব্যক্তিগত প্রতিহিংসা মেটাতে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফিরদৌস আশিক আওয়ান বলেন, সরকারের কৌঁসুলিরা ওই রায়ের মধ্যে অনেক ‘ফাঁক’ খুঁজে পেয়েছেন।

মোশাররফের আইনজীবীরা জানিয়েছেন, তারা সুপ্রিম কোর্টে মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আবেদন করবেন। সরকারি কৌঁসুলিরাও মোশাররফের আইনজীবীদের আবেদনের বিরোধিতা করবে না বলে জানা গেছে। -ডেস্ক