(দিনাজপুর২৪.কম) যুক্তরাষ্ট্রে ভারতীয় বংশোদ্ভূত এক দম্পতিকে গুলি করে হত্যা করেছে তাদেরই মেয়ের সাবেক প্রেমিক। পরে স্ট্যান্ডফের পুলিশের গুলিতে ওই যুবকও মারা যান। ওই যুবকের নাম মির্জা ট্যাতলিক (২৪)।

ওই দম্পতির ২০ বছর বয়সী ছেলের বরাতে সিবিএস জানায়, ঘটনার সময় সিলিকন ভ্যালির প্রযুক্তি নির্বাহী নরেন প্রভু এবং তার স্ত্রী সান জোসের বাড়িতে ছিলেন। আর নরেন প্রভুর মেয়ে অন্য রাজ্যে থাকেন। ঘটনার সময় তিনি বাড়িতে ছিলেন না।
সান জোসের পুলিশ প্রধান এডি গ্রাসিয়া বলেন, ‘অভিযুক্ত যুবকের সঙ্গে নিহত দম্পতির মেয়ের প্রেম ছিল। কিন্তু ঘটনার দিন তিনি সেখানে ছিলেন না। গতবছর তাদের এই সম্পর্কের ছন্দপতন হয়। যুবকের বিরুদ্ধে এর আগেও এ ধরনের পারিবারিক নির্যাতন ও সম্পর্কের জেরে অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। ‘

পুলিশ অফিসাররা ঘটনাস্থল সান ফ্রান্সিসকোর লাওরা ভ্যালি লেনে উপস্থিত হয়ে দেখতে পান, এক যুবক বাড়িটির প্রধান দরজায়, পাশেই একটি দেহ পড়ে রয়েছে।

বাড়িটির ভেতরে ১৩ বছর বয়সী এক ছেলে ও মাকে আটকে রাখা হয়েছিল।

এডি গ্রাসিয়া জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ায় পুলিশ কর্মকর্তারা সোয়াতকে তলব করে। পরে ওই যুবক ১৩ বছর বয়সী ছেলেকে ছেড়ে দেন। কিন্তু নিজে আত্মসমর্পণ করতে অস্বীকার করেন। এরপর পুলিশ বাড়ির ভেতর ঢুকে অভিযুক্ত যুবকসহ দু’জনের লাশ পান। -ডেস্ক