(দিনাজপুর২৪.কম) দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ। রব উঠে গেছে ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে’র। শেষ সময়ের প্রস্তুতি সারছে দলগুলো। বিশেষ উপলক্ষ, তাই প্রতিটি দলই বিশ্বকাপের জার্সিতে বিশেষত্ব রাখারই চেষ্টা করে। সেই বিশেষ জার্সির নকশাও তৈরি হয়ে গেছে। সম্প্রতি লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, টনি ক্রুসরা জাতীয় দলের এই জার্সি পরেই পোজ দিয়েছেন। রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার চিরায়ত আকাশি-সাদা রঙের ‘হোম’ জার্সি থাকছেই। তার সঙ্গে ‘সেকেন্ড কিট’ হিসেবে যোগ হয়েছে কালো রঙের জার্সি। অ্যাডিডাসের বানানো এই জার্সিতে কাঁধের ওপর থাকছে সাদা রঙের তিনটি রেখা। যেটা অ্যাডিডাসের ‘ট্রেডমার্ক’। এ ছাড়া কাঁধ থেকে বুকের দিকে নেমে এসেছে আকাশি রঙের আরও তিনটি রেখা। আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় জার্সিটি সাধারণত নেভি ব্লু রঙের হয়। এবারই কালো রঙের জার্সি দিয়ে এতে বৈচিত্র্য আনছে তারা। বিশ্বকাপের অনুশীলন সারতে আর্জেন্টিনা দল এখন ম্যানচেস্টারে। সেখানেই কালো রঙের জার্সি পরে পোজ দিলেন মেসি। শুক্রবার ইতালির বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে আর্জেন্টিনা দল এই জার্সি পরে মাঠে নামতে পারে। পর্তুগালের ‘হোম’ জার্সি সাধারণত মেরুন রঙের। এবার কিন্তু চিরায়ত সেই মেরুন রঙের জার্সির সঙ্গে ‘অ্যাওয়ে জার্সি’ হিসেবে থাকছে সাদা রঙের জার্সি। রোনালদো মেরুন জার্সি পরেই পোজ দিয়েছেন। নাইকির এ জার্সির পেছনে সোনালি রঙে লেখা থাকবে জার্সি নম্বর ও খেলোয়াড়ের নাম। ২০১৬ ইউরো জয়কে স্মরণীয় করে রাখতেই এই সোনালি রং।
বিশ্বকাপে এবার জার্মানির ‘অ্যাওয়ে জার্সি’র ডিজাইন করা হয়েছে ১৯৯০ বিশ্বকাপজয়ী জার্মান দলের জার্সির রং মাথায় রেখে। অ্যাডিডাসের বানানো সবুজ রঙের এ জার্সির কাঁধের ওপর রয়েছে তিনটি রেখা। ক্রুস-ওজিলরা এই জার্সি পরেই পোজ দিয়েছেন। কলম্বিয়ার ‘অ্যাওয়ে জার্সি’ নীল রঙের। স্পেনের ‘অ্যাওয়ে জার্সি’ ছাই রঙের এবং কাঁধের ওপর লাল রঙের তিনটি রেখা। -ডেস্ক