মেসি-নেইমার
মেসি-নেইমার

(দিনাজপুর২৪.কম) লা লিগার শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে স্বাগতিক আতলেতিকো মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা। ম্যাচে বার্সার হয়ে গোল দু’টি করেছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি ও ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। অন্যদিকে আতলেতিকোর হয়ে একমাত্র গোলটি করেন স্পেনিশ তারকা ফার্নান্দো তোরেস।

শনিবার ভিসেন্তে কালদেরনে শুরুর একাদশে মেসি না থাকলেও আতলেতিকোর বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে বার্সেলোনা। ম্যাচের ১৫ মিনিটে প্রথম সুযোগটি তৈরি করে তারাই। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার কাছ থেকে বিপজ্জনক জায়গায় বল পেয়েও স্বাগতিক গোলরক্ষককে ফাঁকি দিতে পারেননি ইভান রাকিতিচ। এরপর ২৫তম মিনিটে আবার সুযোগ তৈরি করে বার্সেলোনা। রাকিতিচের কর্নারে হাভিয়ের মাসচেরানোর ফ্লিকে বল পান উরুগুয়ে তারকা লুইস সুয়ারেস। কিন্তু তার শট বারে লেগে ব্যর্থ হয়ে যায়।

৩৪তম মিনিটে নেইমারকে দারুণ একটি সুযোগ তৈরি করে দেন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার সুয়ারেস। কিন্তু ব্রাজিলের ফরোয়ার্ড আতলেতিকোর ডিফেন্ডারদের ফাঁকি দিতে না পারায় সেই সুযোগটি হাতছাড়া হয়ে যায়। ফলে গোল শূন্যভাবে শেষ হয় প্রথমার্ধ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই আতলেতিকোকে এগিয়ে নেন মিলান থেকে ধারে খেলতে আসা ফার্নান্দো তোরেস। ৫২তম মিনিটে তিয়াগোর দারুণ এক পাস থেকে গোল করেন এই স্প্যানিশ স্ট্রাইকার। অবশ্য সমতা ফেরাতে বেশিক্ষণ সময় নেয়নি বার্সেলোনা। ৫৫তম মিনিটে ফ্রি কিক থেকে আতলেতিকোর জালে বল পাঠিয়ে স্বাগতিক ভক্তদের স্তব্ধ করে দেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার।

৬০তম মিনিটে রাকিতিচের বদলে মেসি মাঠে নামলে বার্সেলোনার আক্রমণের ধার আরও বাড়ে। মাঠের নামার সাত মিনিটের মধ্যে এগিয়ে নেওয়ার সুযোগ তৈরি করেন মেসি। তার কাছ থেকে বল পেয়ে নেইমার আতলেতিকোর গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন। কিন্তু গোল লাইন থেকে শেষ মুহূর্তে বল ফিরিয়ে দেন স্বাগতিক ডিফেন্ডার দিয়েগো গদিন।

৭৭তম মিনিটে আর হতাশ হতে হয়নি বার্সেলোনাকে। সুয়ারেসের পাস থেকে আতলেতিকোর জালে বল পাঠিয়ে দলকে প্রথমবারের মতো এগিয়ে নেন মেসি। তার উদযাপনই বুঝিয়ে দিচ্ছিল দ্বিতীয় ছেলে বেনজামিনকে উৎসর্গ করেছেন এই গোল। এরপর ৮৭তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার ছিল মেসির সামনে। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেননি বিশ্বের আর্জেন্টাইন তারকা। নেইমারের কাছ থেকে পাওয়া বলে তার ভলি বার উঁচিয়ে বাইরে চলে যায়।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে সমতা আনার সুযোগ পায় আতলেতিকো। কিন্তু প্রতিপক্ষের জালে আর বল পাঠানো হয়নি তাদের। তাই এক পঞ্জিকাবর্ষে নিজেদের মাঠে বার্সেলোনার কাছে তৃতীয় হার এড়াতে পারেনি তারা। ৩ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত লা লিগার শীর্ষে উঠে এসেছে লুইস এনরিকের শিষ্যরা। সমান ম্যাচে দিয়েগো সিমেওনের আতলেতিকোর পয়েন্ট ৬।