(দিনাজপুর২৪.কম) নোয়াখালীর-১ (সোনাইমুড়ী-চাটখিল) আসনের বিএনপির প্রার্থী ব্যারিষ্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। শনিবার সন্ধায় উপজেলার সোনাইমুড়ী বাজারে এই ঘটনাটি ঘটে।  প্রত্যক্ষদশীরা জানান, নোয়াখালীর-১ (সোনাইমুড়ী-চাটখিল) আসনের বিএনপির প্রার্থী ও বিএনপির যুগ্মমহাসচিব ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টায় ডিগ্রি কলেজ প্রাঙ্গনে নির্বাচনী প্রচার সভা আয়োজন করেন। একই সময়ে নোয়াখালী-১ (সোনাইমুড়ী-চাটখিল) আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী এইচ.এম. ইব্রাহিম দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেন। এইচ.এম ইব্রাহিম নির্বাচনী সভা শেষে বিএনপির প্রার্থী ব্যারিষ্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন তার পূর্ব ঘোষিত সভা শুরু করে সোনাইমুড়ী বাজারে এক্সিম ব্যাংক থেকে শুরু করে একটি মিছিল স্টীল ব্রীজের কাছে গেলে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বাধা দিলে তাদের কয়েক জনকে এলোপাতাড়ি মারধর করে।

এই সময় বিএনপির যুগ্মমহাসচিব ও প্রার্থী ব্যারিষ্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ হন। পরে নেতাকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। সোনাইমুড়ী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ, সাদ্দাম, রনি ও রতন সহ প্রায় ২০ জন নেতাকর্মী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বিএনপির দাবী আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সোনাইমুড়ী বাজারের লাকী প্লাজা, গাজীর ঔষধের দোকান, টুটুল এন্ড সন্স সহ প্রায় ১২টি দোকান ভাংচুর করে ও অলস্কয়ার হাসপাতালের সামনে ৩টি মটরসাইকেল আগুনে পুড়িয়ে দেয়।

সোনাইমুড়ী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক খলিলুর রহমান লিটন জানান, তাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করে প্রায় ২০ জনকে আহত করেছে। সোনাইমুড়ী থানার ওসি আবদুল মজিদ ব্যারিষ্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার স্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব রয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত।-ডেস্ক