(দিনাজপুর২৪.কম) বাংলাদেশের হারের জন্য অভিজ্ঞতাকে হয়তো আর দায়ী করা যাচ্ছেনা। ভারতের বিপক্ষে যাদের হাতে বাংলাদেশের হার নিশ্চিত হয় তারা হলেন মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদুল্লাহ। ৪৮ টেস্ট, ১৫৮ ওয়ানডে ও ৫৬ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলার অভিজ্ঞতা মুশফিকের। আর মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ খেলেছেন ২৭ টেস্ট, ১২৫ ওয়ানডে ও ৫২ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। তারপরও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে এই হার থেকে শিক্ষা নেয়ার পরামর্শ দিলেন ভারতের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। বুধবার জয়ের জন্য শেষ ওভারে বাংলাদেশের দরকার ছিল ১১ রানের। প্রথম বলে ১ রান নেন মাহমুদুল্লাহ। আর দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে টানা দুই চার মেরে জয়ের আশা জাগিয়ে তোলেন মুশফিক। জয়ের জন্য তখন প্রয়োজন ৩ বলে ২ রান। কিন্তু চতুর্থ বলে বিগ শট খেলতে গিয়ে ক্যাচ হয়ে ফেরেন মুশফিক। পরের বলে সিঙ্গেল নিয়ে স্কোর সমান না করে ফের বড় শট খেলতে যান মাহমুদুল্লাহ। এবার তিনিও ক্যাচ। এতে শেষ বলে জয়ের জন্য প্রয়োজন পড়ে ২ রান। শুভাগত হোমের পক্ষে সেটা আর নেয়া সম্ভব হয়নি। মাহমুদুল্লাহকে এই ‘বোকামি’ থেকে শিক্ষা তিনে বললেন ধোনি। তিনি বলেন, ‘ক্রিকেট খেলাটাই এমন। মাহমুদুল্লাহর ওই শটটাই যদি ছক্কা হতো তাহলে সবাই তার সাহসিকতার প্রশংসা করতো। কিন্তু সেটা না হওয়ায় এখন তার সমালোচনা হবে। এটাই ক্রিকেট।’ এই ভুল থেকে মাহমুদুল্লাহকে শিক্ষা নেয়ার পরামর্শ দিয়ে ধোনি বলেন, ‘এমন মুহূর্তে অনেক সময় বড় শট খেলে ম্যাচ শেষ করে দিতে ইচ্ছা করে। ভাল ব্যাটিং করতে থাকলে এমন ইচ্ছা আসাটাই স্বাভাবিক। বিশেষকরে হাতে উইকেট থাকলে। এ সময় মনে হয়- আউট হয়ে গেলে অন্য কেউ তো এসে শেষ করতে পারবে। কিন্তু সেটা সব সময় একই রকম হয় না। মাহমুদুল্লাহর জন্য এটাই শিক্ষা। এখান থেকে সে শিক্ষা নিতে পারে।’-ডেস্ক