(দিনাজপুর২৪.কম) দেশের মানুষের নিরাপত্তা এখন জিরো পর্যায়ে চলে এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেছেন, দেশে এখন মানুষের কোন নিরাপত্তা নেই। নিরাপত্তা এখন জিরো পর্যায়ে চলে এসেছে। বর্তমান সরকার যে একটি বড় ব্যর্থ সরকার এটি তার বড় প্রমাণ। পল্টনস্থ মৈত্রী মিলনায়তনে গতকাল রাজনৈতিক নেতাদের সৌজন্যে ২০ দলীয় জোটের শরিক দল কল্যাণ পার্টি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। ড. মোশাররফ বলেন, আমি বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যানের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়ে সরকারকে বলতে চাইÑ খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে ষড়যন্ত্রমুলকভাবে ক্ষমতায় থাকার স্বপ্ন বাদ দেন। অতীতে কোন স্বৈরাচার এভাবে ক্ষমতায় থাকতে পারেনি, আগামীতেও পারবে না। পৃথিবীর ইতিহাসে তেমন কোন নজির নেই। ২০১৮-১৯ সালের প্রস্তাবিত বাজেটকে নির্বাচনী বাজেট হিসেবে অ্যাখায়িত করে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, নির্বাচনী বছরে ভোটের আকর্ষণের জন্য এত বড় ঘাটতির একটি বিশাল বাজেট দেয়া হয়েছে। এটা ভোট আকর্ষণের বাজেট, জনগণের স্বার্থের নয়। তাই আমরা এই বাজেট প্রত্যাখান করছি। কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক বলেন, ২০দলীয় জোটের একটি শরিক দল হিসেবে বাংলাদেশ কল্যান পার্টি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করছে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে আমরা ছিলাম, আছি এবং থাকব। পরে কল্যান পার্টির চেয়ারম্যান দেশ ও জাতির শান্তি, সমৃদ্ধি ও উন্নতি কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন। কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন দলটির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান। ইফতারে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আসান, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ২০ দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর মিয়া গোলাম পারোওয়ার, নির্বাহী সদস্য মাওলানা আবদুল হালিম, জাতীয় পার্টি (জাফর) প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লিঙ্কন,  বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, এনপিপি চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান, এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, খেলাফত মজলিশ মহাসচিব ড. আহমেদ আবদুল কাদের, এলডিপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, জাগপা সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, বিজেপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মতিন সাউদ ও ডিএল সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, লেবার পার্টি (একাংশ) চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, (অপরাংশ) চেয়ারম্যান এমদাদুল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ জাতীয় দল চেয়ারম্যান এডভোকেট সৈয়দ এহসানুল হুদা, কল্যাণ পার্টির স্থায়ী কমিটির সদস্য ফোরকান ইবরাহিম, অধ্যাপক ডা. ইকবাল হাসান মাহমুদ, এডভোকেট আজাদ মাহবুব, ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান তামান্না ও যুগ্ম মহাসচিব নুরুল কবির ভুইয়া পিন্টু উপস্থিত ছিলেন। -ডেস্ক