-ফাইল ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর শহর থেকে প্রায় ৮ কিলো দূরে রয়েছে অনেক পুরাতন ঐহিত্যবাহী ফাঁসিলাডাঙ্গা বাজার। অনেকে গরুহাট হিসেবে চেনে। কিন্তু বর্তমানে মাদক বিরোধী অভিযান চললেও থেমে নেই মাদকসেবীদের দৌরাত্ম। তারা প্রশাসনকে ফাঁকি দিয়ে নিয়মিত গাঁজা, ইয়াবা সেবন করছে মরণব্যাধী নেশা ফেন্সিডিল। প্রশ্ন হলো এত অভিযানের পরও কোথা থেকে পাচ্ছে তারা নেশা সামগ্রী।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, ফাঁসিলাডাঙ্গা বাজারের গোডাউনের পেছনে, বিকেলে ও সন্ধ্যায় কলেজের ভেতরে এবং গভীর রাত্রিতে হঠাৎ করেই গাঁজা খোর সহ মাদকসেবীদের আনাগোনা বেড়েই চলেছে। আমরা অভিভাবকরা নিজেদের সন্তানদের নিয়ে শঙ্কিত। আরেক অভিভাবক জানান, মাদকসেবনকারীরা কৌশলে গাঁজা, ইয়াবা, ফেন্সিডিল সেবন করে। বিশেষ করে এখন আর গাঁজার পুড়িয়া দেখা যায় না। বিক্রেতারা অভিনব পন্থায় সিগারেটের ভেতরে গাঁজা ঢুকিয়ে বিক্রি করছে যেন কেউ দেখতে না পায়। স্থানীয় অভিভাবক মহল মাদকসেবীদের সেবন বন্ধের জন্য দিনাজপুর জেলা প্রশাসক, র‌্যাব এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।