(দিনাজপুর২৪.কম) বিপিএলে দারুণ পারফর্ম করে নিউজিল্যান্ড সফরের দলে জায়গা করে নেন তাসকিন আহমেদ। কিন্তু তার ১০ দিন পর হঠাৎ করে গোড়ালির চোট তাকে ছিটকে দেয়। নিউজিল্যান্ড যাওয়া না হলেও ইনজুরি কাটিয়ে উঠতে লড়াই করে গেছেন বাংলাদেশের এই পেসার। এক মাসেরও বেশি দিন পুনর্বাসনে ছিলেন, ফিটনেস ফিরে পেতে এবার নেটে বোলিং শুরু করেছেন তিনি।বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নে বিভোর তাসকিন। তাই দল ঘোষণার আগে অন্তত ফিট হতে চান। চোটে পড়ার ৩৪ দিন পর গতকাল বল হাতে নিলেন তিনি। প্রথম দিন ৫ ওভার বল করেছেন। ছোট রান আপ নিয়ে করা বলগুলোয় খুব বেশি গতি ছিল না। ধীরে ধীরে বোলিংয়ের গতি বাড়ানোর সঙ্গে বোলিং বৈচিত্র্য নিয়েও কাজ করতে চান তাসকিন।প্রথম দিনের অনুশীলন শেষে তাসকিন বলেছেন, প্রথম দিনের মতো বোলিং করে আমি সন্তুষ্ট। কোনও ব্যথা নেই। ৩০টি বল করলাম শর্ট রান আপে। আল্লাহ চাইলে সামনে আগের মতোই গতি বাড়বে। একদিন পর পর বোলিং করতে হবে।’তাসকিনকে সারাক্ষণ পর্যবেক্ষণে রেখেছিলেন বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী ও প্রধান ফিজিও বায়েজিদুল ইসলাম। তবে ফিজিও শাওন খাদেমুলের তত্ত্বাবধানে পুনর্বাসনে অংশ নেন এই পেসার। ফিজিওদের ছাড়পত্র পেয়েই গতকাল বল হাতে নিয়েছেন তাসকিন, আমি ফিজিও শাওন ভাইয়ের অধীনে আছি এখন। এছাড়া বায়েজিদ ভাই, দেবাশিষ স্যারও দেখেছেন। শাওন ভাই শুরু থেকেই দেখছেন। তিনি আমার বেশ কিছু ফিটনেস টেস্ট নিয়েছেন। সবগুলোতে উন্নীত হয়েই বোলিং শুরু করেছি। যদি ফিটনেস টেস্টগুলোর মধ্য দিয়ে যেতে না হতো তাহলে আরও আগেই বোলিং শুরু করতে পারতাম।আগামী কয়েক সপ্তাহ এভাবে অনুশীলন করে পুরোপুরি ফিট হয়ে প্রিমিয়ার লিগের ‘সুপার লিগ’ পর্ব খেলতে উন্মুখ হয়ে আছেন তাসকিন। তিনি বলেন, আশা করছি সুপার লিগ থেকে খেলতে পারবো। কতটুকু উন্নতি হচ্ছে সেটার ওপর নির্ভর করছে, কোন ম্যাচ থেকে খেলবো। -ডেস্ক