(দিনাজপুর২৪.কম) ভারতে এক মহিলাকে ধর্ষণ করে তার মুখে এসিড ছোঁড়া এবং তার বন্ধুকে হত্যা করার অভিযোগে দেশটির সীমান্ত রক্ষীবাহিনী বিএসএফের দুই কনস্টেবলকে গ্রেফতার করেছে মিজোরাম পুলিশ।

বুধবার মামিট জেলার পুলিশ সুপার নারায়ণ থাপা জানান, মঙ্গলবার ত্রিপুরা ও বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া সিলসুরি গ্রাম থেকে দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেখানেই দুজনের পোস্টিং ছিল।

পুলিশের অভিযোগ, বিএসএফ-এর ১৮১ ব্যাটালিয়নে কর্মরত ২ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে প্রথমে গেলে বাধা দেয় বাহিনী। পরে, নিম্ন আদালত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে জামিন-অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করলে পুলিশের হাতে তাদের তুলে দেয় বিএসএফ।

অভিযোগ, গত ১৬ জুলাই চাকমা সম্প্রদায়ের ২ মহিলা জঙ্গলে গিয়েছিলেন বাঁশ সংগ্রহ করতে সেই সময় একজনকে ধর্ষণ করে অভিযুক্তরা।

কোনোক্রমে সেখানে পালিয়ে যান ওই মহিলার বন্ধু। কিন্তু, প্রায় এক সপ্তাহ পরে নির্যাতিতার বন্ধুর দেহ পাশের জঙ্গল থেকে উদ্ধার হয়। দেহটিতে পচন ধরে নেওয়ায় তা চিনতে প্রথমে অসুবিধে হয়।

সম্প্রতি, মামিট থানায় ২ আইডেন্টিফিকেশন প্যারেডে ২ অভিযুক্তকে চিনে ফেলেন নির্যাতিতা। পুলিশের দাবি, অ্যাসিড হামলায় নির্যাতিতার দৃষ্টিশক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় একমাস তিনি কিছু দেখতে পাননি। ফলে, প্যারেড করাতে দেরী হয়। -ডেস্ক

সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস