(দিনাজপুর২৪.কম) দেশ এক ভয়ঙ্কর অবস্থার মধ্য দিয়ে চলেছে। এই অবস্থায় দেশকে বাঁচাতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। গত শুক্রবার নবান্নে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে বেরিয়ে এসে এই মন্তব্য করেছেন জন্মু ও কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান ফারুখ আবদুল্লা। এই সময় মমতাও তার পাশে ছিলেন। একই সঙ্গে রাহুল গান্ধীরও প্রশংসা করেছেন ফারুখ আবদুল্লা। তিনি বলেছেন, রাহুল এখন আর পাপ্পু নন। উনি রাহুল গান্ধী। যারা কটাক্ষ করেছিল, তারাও বুঝতে পারছে। বিভাজনের নিত্যনতুন কৌশল আমদানি করে এ দেশের রাজনীতিতে সৌজন্য এবং পরম্পরার অপমৃত্যু ঘটানো হচ্ছে বলে সরব হয়েছেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের এই সাংসদ। কলকাতায় বণিকসভা ভারত চেম্বার অফ কমার্সের আয়োজনে একটি কথোপকথনের আসরে শুক্রবার ফারুখ আবদুল্লা অভিযোগ করেছেন, মানুষের হৃদয় জয় করার কোনও চেষ্টা না করে নরেন্দ্র মোদীর রাজত্বে শুধুই বিভাজন ঘটানো হচ্ছে। কাশ্মীরের পরিস্থিতিরও সেই কারণে অবনতি হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে বিজেপি নেতারা যেভাবে ‘পাপ্পু’ বলে কটাক্ষ করতেন, তারও কড়া সমালোচনা করেছেন তিনি।

বণিকসভার অনুষ্ঠানের পরে নবান্নে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একান্তে বেশ কিছুক্ষণ কথা বলেন বর্ষীয়ান এ নেতা। এদিকে সোমবার কলকাতায় ফের মমতার সঙ্গে দেখা করতে আসছেন তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির প্রধান কে সি চন্দ্রশেখর রাও। বিরোধী জোট নিয়েই মমতা তার সঙ্গে কথা বলবেন বলে মনে করা হচ্ছে। কিছুদিন আগে আরও একবার চন্দ্রশেখর কলকাতায় এসে মমতার সঙ্গে ফেডারেল ফ্রন্টের পক্ষে সওয়াল করেছিলেন। এরপরেই অবশ্য তিনি বিজেপির দিকে ঝুঁকেছিলেন। তবে তেলেঙ্গানা নির্বাচনে একা লড়াই করে সাফল্য আসার পরে ফের তিনি বিরোধী জোটের দিকে ঝুঁকেছেন। -ডেস্ক