(দিনাজপুর২৪.কম) ট্রায়াল ভ্যাকসিন নিয়ে  তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন,  তাই সিরাম ইনস্টিটিউটের কাছে পাঁচ কোটি  টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করলেন তামিলনাড়ুর বছর চল্লিশের এক ব্যক্তি।

উল্লেখযোগ্য,  সিরাম ইনস্টিটিউটের ব্যবস্থাপনায়  অক্সফোর্ড – অ্যাস্ট্রাজেনেকা  ভ্যাকসিনের তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল চলছে ভারতে।  তামিলনাড়ুর  একটি আইনি পরামর্শদাতা সংস্থার পক্ষে সি রাজারাম সিরাম ইনস্টিটিউটের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করে জানিয়েছেন,  চলতি সপ্তাহে সিরামের কাছ থেকে তারা কোনও জবাব না পেলে আইনের দ্বারস্থ হবেন। সিরামকে লেখা নোটিশে জানানো হয়েছে, স্বেচ্ছাসেবকটি  এক অক্টোবর  চেন্নাইয়ের  শ্রীরাম ইনস্টিটিউট অফ  হায়ার এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চে  এই টিকা নেন।  টিকা নেয়ার আগে বলা হয়েছিল যে, ভ্যাকসিন নেয়ার পর সামান্য জ্বর ও শীত ভাব আসতে পারে।  কোভিড  হলেও তা  সামান্যই হবে।  কিন্তু, এই ব্যক্তি প্রচন্ড মাথাব্যাথা ও  এনসোফেলাপাথি  নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে বাধ্য হন।  এরপর তিনি ২৬ অক্টোবর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান।  কিন্তু, এখনো তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ নন।  প্রায়ই মেজাজ হারাচ্ছেন এবং কোন কথা বুঝতে পারছেন না।  রামচন্দ্র জানিয়েছেন,  গোটা ঘটনাটি তাঁরা ড্রাগ কন্ট্রোলার অফ ইন্ডিয়াকেও জানিয়েছেন।  এই প্রসঙ্গে সিরাম ইনস্টিটিউটের প্রতিক্রিয়া না জানা গেলেও  শ্রীরাম  ইনস্টিটিউট অফ হায়ার এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চের পক্ষ থেকে বিষয়টি উড়িয়ে দেয়া হয়েছে।  তারা জানিয়েছেন,  ওই ব্যক্তির আগের কোনও অসুস্থতার কারণে এই অবস্থা হয়েছে কিনা খতিয়ে দেখতে হবে।  তিনি জানান,  ড্রাগ কন্ট্রোলার এর পক্ষ থেকে পরীক্ষা বন্ধ করার কোনও নির্দেশ আসেনি। -ডেস্ক