(দিনাজপুর২৪.কম) ভেনিজুয়েলা সঙ্কটে ক্ষতিগ্রস্ত শিশুর সংখ্যা ৫ লাখ থেকে দ্বিগুণেরও বেশি বেড়ে ১১ লাখে দাঁড়িয়েছে। ফলে এ বছর এসব শিশুর জন্য মানবিক সাহায্য প্রয়োজন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (০৪ এপ্রিল) জাতিসংঘ শিশু সংস্থা একথা জানায়। খবর এএফপি’র।

ইউনিসেফের এক বিবৃতিতে বলা হয়, মোট এ সংখ্যার মধ্যে ভেনিজুয়েলা থেকে উচ্ছেদ করা শিশু অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। বিতাড়িত করা এসব শিশুর বেশির ভাগই ল্যাটিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় দেশ থেকে এখানে আসে।

এদিকে দাতা সংস্থাগুলোর ধারণা, আসন্ন মাসগুলোতে ভেনিজুয়েলার রাজনৈতিক সংকট আরো প্রকট হবে। এতে দেশটিতে শিশু ও বহু পরিবারের মানবিক পরিস্থিতির ব্যাপক অবনতি ঘটছে।

ইউনিসেফ শিশুদের অধিকার সমুন্নত এবং তাদের প্রয়োজনীয় সেবা পাওয়ার সুযোগ নিশ্চিত করতে এ অঞ্চলের সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

গত সপ্তাহে এএফপি’র হাতে আসা জাতিসংঘের অভ্যন্তরীণ এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভেনিজুয়েলার ৭০ লাখ লোকের মানবিক সাহায্যের প্রয়োজন রয়েছে। এ সংখ্যা দেশটির মোট জনসংখ্যার প্রায় ২৪ শতাংশ।

প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো ভেনিজুয়েলার অর্থনৈতিক সমস্যার জন্য মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে দায়ী করলেও দেশটির বিরোধী দলীয় নেতা জুয়ান গুয়াইদো বলেন, দেশের আর্থিক দৈনদশার জন্য বর্তমান সরকারের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনা দায়ী। গুয়াইদো নিজেকে দেশের অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেছে।

ফলে যুক্তরাষ্ট্রসহ সারাবিশ্বের প্রায় ৫০টি দেশের সরকার গুয়াইদোকে স্বীকৃতি দিয়েছে।

এদিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ যুক্তরাষ্টের আবেদনের প্রেক্ষিতে ভেনিজুয়েলার মানবিক সংকট নিয়ে আলোচনা করতে আগামী সপ্তাহে বৈঠকে বসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। -ডেস্ক