প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । পুরোনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) ভূরাজনৈতিক বিরোধের মাধ্যমে করোনা মহামারি মোকাবিলায় জাতিসংঘের প্রচেষ্টাকে দুর্বল না করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ঐক্যবদ্ধভাবেই সাফল্য আসে। আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় জাতিসংঘের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উদ্বোধনী ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্বজুড়ে নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় জাতিসংঘের বিশ্বাসযোগ্য এবং কার্যকর রোডম্যাপ প্রণয়ন করা উচিত। এ সময় জাতিসংঘকে একটি কার্যকর বিশ্ব সংস্থা হিসেবে দেখার আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি।

জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘বর্তমানে শান্তি রক্ষা মিশনে সেনা ও পুলিশ সদস্য মোতায়েনে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। সংঘাত কবলিত দেশগুলোতে শান্তি সমুন্নত রাখতে বাংলাদেশের দেড় শতাধিক শান্তিরক্ষী জীবন উৎসর্গ করেছেন।’

এর আগেই জাতিসংঘের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা এবং বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘মানব সভ্যতার পুর্নবিন্যাস হয়েছে ইতিহাসের নানা সময়। জাতিসংঘের ৭৫তম সাধারণ অধিবেশনও সেরকম একটি মুহুর্তের সাক্ষী হতে যাচ্ছে।’

করোনা পরিস্থিতির বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার কথা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘মহামারিসহ বর্তমান সময়ের নানা সংকট ভিশন ২০৩০ অর্জনকে আরও বেশি চ্যালেঞ্জিং করে তুলেছে। এ ছাড়া এই মহামারি আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংকট সামনে এনেছে। একই সঙ্গে এই মহামারি দেখিয়েছে যে, উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশগুলোর অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে এই মুহূর্তে জাতিসংঘকে বেশি প্রয়োজন। প্রমাণ হয়েছে বহুপাক্ষিকতাই সামনে এগিয়ে যাওয়ার একমাত্র পথ।’ -ডেস্ক