মনজুরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) ভুরুঙ্গামারীতে এসডিএফ কর্তৃক পরিচালিত উত্তর ছাটগোপালপুর বাজার পাড়া গ্রাম সমিতির পরিচালনা কমিটির সভাপতি কর্তৃক সদস্যদের নামে একাধিক ঋণ নিয়ে অর্থ আত্মসাত করায় হিসাব নিকাশ নিয়ে সদস্যদের সঙ্গে সংঘর্ষে ২ জন আহত। থানায় মামলা দায়ের। সমিতির সদস্যদের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা। সমিতির কাগজপত্র জব্দ করে ইউনিয়ন পরিষদে জমা করেছে সংস্থার কর্মরতরা।
জানাগেছে উপজেলার শিলখুড়ি ইউনিয়নের পশ্চিম ছাটগোপালপুর বাজার পাড়া গ্রামে বেসরকারী এনজিও সংস্থা সোস্যাল ডেভলোপমেন্ট ফাউন্ডেশন(এসডিএফ) কর্তৃক হত দরিদ্রদের জীবনমান উন্নয়নে বিভিন্ন ঋণদান কর্মসুচির সুবিধা প্রদান করে আসছে। এদিকে উক্ত সমিতির সভাপতি একই গ্রামের হজরত আলীর স্ত্রী কোহিনুর বেগম ও ফজলুর রহমানের স্ত্রী ক্যাশিয়ার নীলুফা বেগমের যোগসাজসে সমিতির সদস্যদের সঞ্চয়ের টাকা ও সদস্যদের না জানিয়েই অনেকের নামে বেনাম ঋণ উত্তোলন করে দাদন ব্যবসা করে । এদিকে অনেক সদস্য ঋণ না নিলেও তাদের নামে ঋণ থাকায় তারা অন্যান্য সদস্যরা মিলে সমিতির কার্যালয়ে গিয়ে হিসাব নিকাশ চাইতে গেলে কোহিনুর বেগমের সঙ্গে বাগবিতন্ডার সৃষ্টি হলে কোহিনুর বেগম(৩২) তার স্বামী হজরত আলী(৪২) ও হজরত আলীর পুত্র জাহিদ হাসান (১৮) ও মৃত ময়েন সেখের কন্যা কাজুলী বেগম(৪৫) পুর্বপরিকল্পনা মোতাবেক বাড়ি থেকে লাঠি সোঠা নিয়ে সদস্যদের উপর অতর্কিত হামলা করে। হামলায় একই গ্রামের বেলাল হোসেনের স্ত্রী মোছাঃ মর্জিনা বেগম(২৮) ও ডাঃ ময়নাল হকের স্ত্রী মোছাঃ মর্জিনা বেগম(৩০) মারাত্মকভাবে আহত হয়। পরে আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। এদিকে সৃষ্ট ঘটনায় এসডিএফ কর্তৃপক্ষ সমিতির সকল কাগজপত্র জব্দ করে শিলখুড়ি ইউনিয়ন পরিষদে জমা রাখে। মর্জিনার স্বামী বেলাল হোসেন বাদী হয়ে কোহিনুর বেগম সহ ৪ জনের নামে ভুরুঙ্গামারী থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে এসডিএফ এর সিএফ আব্দুর রাজ্জাক ও শামীম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,সদস্যদের অভিযোগের বিষয়টি নিয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে সমিতির হিসাব নিকাশ করার সময় সভাপতি কোহিনুর ও তার লোকজন তাদের উপর আক্রমন করে।