(দিনাজপুর২৪.কম) চুক্তির শর্তভঙ্গ ও দীর্ঘদিন ধরে ভাড়া পরিশোধ না করায় সিরাজগঞ্জে উল্লাপাড়ায় বিএনপি কার্যালয়টি তালাবদ্ধ করেছে কর্তৃপক্ষ। প্রায় ২৫ বছর ধরে সমবায় বিভাগের ভবনটি বিএনপি কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছিল। সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলা কেন্দ্রীয় বহুমুখী সমবায় সমিতির কর্মকর্তারা অফিসটি তালাবদ্ধ করে দেয়।

সমবায় সমিতির সহকারী পরিদর্শক জহুরুল ইসলাম জানান, ভাড়া বাকি ও চুক্তির শর্তভঙ্গ করার কারণে চুক্তিনামা বাতিল করা হয়। গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সমিতির ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ২৯ জানুয়ারি কার্যালয়ে সমিতির সাইনবোর্ড টানিয়ে দেয়া হয়।

তিনি আরও জানান, ১৯৯২ সালে উপজেলা পরিষদের পাশে সমবায় অফিসের একতলা ভবনটি তৎকালীন সংসদ সদস্য এম আকবর আলী নিজের নামে ভাড়া নেন। আকবর আলীর নামে ভাড়া নিলেও পরে এটি বিএনপি দলীয় কার্যালয় হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছিল। প্রায় দু’বছর ধরে বিএনপি এই কার্যালয়ের ভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করছে না। বারবার ভাড়া ও বিল দিতে বলা হলেও তাদের কেউ তা আমলে নেননি। তাই বাধ্য হয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক বলেন, দীর্ঘদিন ধরে উল্লাপাড়া বিএনপি দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে যাওয়ায় অফিস দখল নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। ফলে কোনো পক্ষই ভাড়া পরিশোধ করেনি। আর এজন্যই উপজেলা সমবায় বিভাগ তাদের অফিস ভাড়ার চুক্তিনামা বাতিল করেছে।

উপজেলা বিএনপির একাংশের আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি আকবর আলী বলেন, কার্যালয়টি আমি ভাড়া নিলেও পরবর্তীকালে বিএনপি কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছিল। দলীয় কোন্দলের কারণে দু’বছর ধরে ওই কার্যালয় নিয়মিত ব্যবহার হয় না। এ কারণে ভাড়া বাকি রয়ে গেছে।

আকবর আলী দাবি করেছেন, বর্তমান সরকারের দলীয় সংসদ সদস্যের চাপে পড়ে সমবায় বিভাগ চুক্তিনামা বাতিল করে এই কার্যালয় বন্ধ করে দিয়েছে। -ডেস্ক