(দিনাজপুর২৪.কম) দেশীয় চলচ্চিত্রের অন্যতম সেরা অভিনেত্রী শাবনূর বলেছেন, আমাদের চলচ্চিত্র শিল্পে অনেক মেধাবী পরিচালক রয়েছেন। কিন্তু ভাল প্রযোজকের অভাবে তারা ছবি বানাতে পারছেন না। ভাল প্রযোজকের অভাবেই এখন মানসম্পন্ন ছবি হচ্ছে না। এভাবে চলতে থাকলে আগামী ৫ বছরেও চলচ্চিত্র শিল্প উন্নয়নের মুখ দেখবে বলে আমার মনে হয় না। শাবনূর দীর্ঘ দুই বছর পর সম্প্রতি ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘পাগল মানুষ’ ছবির শুটিংয়ে। বিয়ে এবং মা হওয়ার কারণে শুটিং থেকে দূরে ছিলেন তিনি। এফডিসির ৭ নম্বর ফ্লোরে ‘পাগল মানুষ’ ছবির গানের শুটিংয়ে অংশ নিচ্ছিলেন শাবনূর। সঙ্গে নায়ক ছিলেন শায়ের খান। শুটিংয়ের ফাঁকে মানবজমিন-এর সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে খোলামেলা কথা বলেন দীর্ঘ সময়ের জনপ্রিয় এ তারকা। শাবনূর শুটিং করছেন এমন সংবাদে প্রযোজক, পরিচালক, সাংবাদিক প্রায় সবাই ছুটে যান ৭ নম্বর ফ্লোরে। শাবনূর কাউকেই বিমুখ করেননি। হাসিমুখেই সবার প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। মজা করেছেন। বললেন, আমাদের সময়টাই ছিল আলাদা। একটা পরিবারের মতো ছিলাম আমরা। এই যে সবাই আসছেন, দেখা হচ্ছে, খুবই ভাল লাগছে আমার। মনে হচ্ছে আমাদের আগের সময়েই ফিরে গেছি। ভাল ছবির প্রসঙ্গ উঠলে শাবনূর বলেন, ভাল প্রযোজক কোথায়? এখন একজন পরিচালক প্রযোজক আনলে তাকে নিয়ে কাড়াকাড়ি শুরু হয়ে যায়। এখন পরিচালক তাড়াহুড়ো করে ছবি নির্মাণ করেন। সেটা ভাল হয় না। প্রযোজকও থাকেন না। শাবনূর বলেন, আমাদের দেশে অনেক ভাল ভাল পরিচালক আছেন। কিন্তু গল্পকারের অভাব আর টেকনিক্যাল সাপোর্টের নানা অসঙ্গতির কারণে ভাল সিনেমা নির্মাণ হচ্ছে না। তার ওপর আবার রয়েছে ভাল প্রেক্ষাগৃহের অভাব। অনেক তারকা ছবি প্রযোজনা করেছেন। কিন্তু আপনি করছেন না কেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে শাবনূর বলেন, ছবি প্রযোজনা না করার অনেক কারণ আছে। আমার কাছে খুব সুন্দর সুন্দর গল্প আছে। কিন্তু গল্প অনুযায়ী আমার প্রয়োজন তিনজন নায়ক নায়িকা। বাস্তব সত্য হলো, আমি আমার পছন্দ মতো নায়ক-নায়িকা পাবো না। ‘এ ওর সঙ্গে করবে না, এ থাকলে ও নেই’Ñ এটা খুব বড় জটিলতা। গল্প কিংবা চরিত্র শুনতে চাইবেন না কেউ। ইগো নিয়ে বসে থাকবেন। তবে সালমান শাহ থাকলে আমি এতদিনে ছবি প্রযোজনা করে ফেলতাম। কারণ, একটি ভাল ছবি নির্মাণের জন্য আমি আর সালমানই যথেষ্ট ছিলাম। এখন কে আছেন? শাবনূর বলেন, আমাদের সিনেমা জগতে অনেক নায়ক নায়িকা। কিন্তু শিল্পী কোথায়? আমরা যে পরিশ্রম করে কাজ করেছি সেরকম পরিশ্রম করার মতো মানুষ কই? আমি তো সকালে এসে মেকাপ রুম খুলিয়েছি। সারা রাত শুটিং করেছি। একদিনে ছবির ডাবিংও শেষ করে দিয়েছি। এখন সে অবস্থা আছে বলে তো আমি শুনি না। শাবনূর বলেন, আমরা শিল্পীদের মধ্যে অনেক মিল। কিন্তু কাজের বেলায় আমরা সবাই স্বার্থপর। ভাল কাজটাকেও গুরুত্ব দিতে চাই না। আমরা পুরনোরা এখন অনেকটাই সেলফি নির্ভর। সেলফি তুলে বোঝাতে চাই আমাদের মধ্যে দারুণ সম্পর্ক। কিন্তু যান একটি সুন্দর গল্পের ছবি নিয়ে, শুনবেন একটা কথাই, ‘ও থাকলে আমি কি করবো?’ ‘আমার চরিত্রের গুরুত্বই কই’ ইত্যাদি ইত্যাদি। শাবনূর বলেন, মোটকথা আমাদের ইন্ডাস্ট্রির এখন হাল ধরার কেউ নেই। আবার যদি রাজ্জাক আংকেল, পারভেজ আংকেল, ফারুক আংকেল, কবরী আপা, ববিতা আপারা শক্ত হাতে ইন্ডাস্ট্রির হাল ধরেন, তাহলে চলচ্চিত্রের কিছু হবে। তা না হলে আমি কোন সম্ভাবনা দেখছি না। -ডেস্ক