hili-dinajpur24নুরুন্নবী বাবু (দিনাজপুর২৪.কম) ভারত সরকার আকস্মিকভাবে ৫০০ ও ১০০০ রুপী নোটের লেনদেন নিষিদ্ধ করায় সেদেশে গিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন পাসপোর্টধারী শত-শত বাংলাদেশি রুগী ও পর্যটকরা। ফলে তাদের কাছে থাকা এসব নোট ভাঙ্গাতে না পারায় ফিরে আসতে বাধ্য হচ্ছেন দেশে। একারণে ভারতে যাওয়া যাত্রী সংখ্যা গিয়ে ঠেকেছে অর্ধেকেরও নীচে।
মো. রফিকুজ্জামান, ওসি, হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট, দিনাজপুর জানান গত এক সপ্তাহ আগেও প্রতিদিন হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে যাওয়া-আসা করতো প্রায় ৩’শ বাংলাদেশি যাত্রী। এদের মধ্যে অর্ধেক যাত্রীই যাই চিকিৎসার জন্য ভারতে। আর বাকী অর্ধেক যাই ভ্রমন সহ ব্যবসা-বানিজ্যের কাজে। বর্তমানে তার হার কমে ঠেকেছে ১০০- এর নীচে। আর ভারত থেকে বাংলাদেশে আসে মাত্র ৪০-৫০ জন ভারতীয় যাত্রী। গত ৮ নভেম্বর মধ্যরাত থেকে ৫০০ ও ১০০০ রুপী নোটের লেনদেন নিষিদ্ধ করে ভারত সরকার। ফলে ভারতে গিয়ে চরম বিপাকে পড়েন পাসপোর্টধারী এসব বাংলাদেশি রুগী ও পর্যটকরা।
হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরে আসা দেশে ফিরে আসা বাংলাদেশি ৪ জন যাত্রী যাত্রীরা জানালেন, হাসপাতাল, ট্রেন, বাসে, হোটেলে ৫০০ ও ১০০০ রুপীর নোট দিয়ে সেবা নেওয়ার ঘোষনা দিলেও তা গ্রহণ করছে না এসব সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। ফলে খুচরা নোটের অভাবে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে।