(দিনাজপুর২৪.কম) বাংলাদেশের ক্রিকেট-উন্নতিতে মুগ্ধ বিশ্বের অনেক সাবেক খেলোয়াড়। এবার সেই দলে যোগ দিলেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী আিধনায়ক কপিল দেব। তিনি মনে করেন, এশিয়ার অন্যতম সেরা পেস অ্যাটাকের দল বাংলাদেশ। এমন কি ভারতের চেয়ে বাংলাদেশের পেস অ্যাটাক ভাল। চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টেনে একটি ম্যাচও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে জিততে জিততেও হেরে যায় তারা। আর ভারত সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছে। বিশ্বকাপে ভারতের পেস আক্রমণে ছিলেন আশিষ নেহরা, জসপ্রিত বুমরাহ ও হার্দিক পান্ডিয়া। অন্যদিকে বাংলাদেশের পেস অ্যাটাকের অন্যতম শক্তি তরুণ বিস্ময় মুস্তাফিজুর রহমান, আল-আমিন হোসেন ও তাসকিন আহমেদ। এছাড়া অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা তো আছেনই। ইনজুরির কারণে খেলতে না পারা রুবেল হোসেন দলে ফিরলে বাংলাদেশের পেস অ্যাটাক হয়ে উঠবে আরও দুর্দান্ত। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের পেস অ্যাটাককে ভারতের চেয়ে ভাল মনে করেন কপিল দেব। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যম ‘বিবিসি’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘ভীষণ উন্নতি করেছে ওরা (বাংলাদেশ)। এখন ওদের শুধু আরও ম্যাচিওরড (পরিপক্ব) হয়ে উঠতে হবে। বাংলাদেশ দলে যে জিনিসটা আমার সবচেয়ে ভাল লাগে তা হল মাত্র দশ-পনেরো বছর আগেও স্পিনাররাই ছিল তাদের একমাত্র ভরসা। আর এখন দেখুন, ঢাকার এশিয়া কাপে ওরা কী দারুণ সিমিং ট্র্যাক বানায়। সেখানে ওদের ফাস্ট বোলাররা কীভাবে প্রতিপক্ষকে কাঁপিয়ে দেয়। ফাস্ট বোলাররা এখন ওদের বড় শক্তি। সেটা ভারতের ফাস্ট বোলিং অ্যাটাকের চেয়েও ভাল। এটা তো আপনাকে সমীহ করতেই হবে।’ কাপিল দেব মনে করেন, এখনকার বাংলাদেশ দলটার আত্মবিশ্বাসই আলাদা। বলেন, ‘ইদানীং তাদের যেভাবে আত্মবিশ্বাসে টগবগ করতে দেখছি সেটা প্রায় অবিশ্বাস্য। এই একই জিনিস কিন্তু শ্রীলঙ্কার ক্ষেত্রেও ঘটেছিল। টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর দলটা যেভাবে দ্রুত ঘুরে দাঁড়িয়েছিল তা ভাবাই যায়নি। বাংলাদেশকে সে জায়গায় পৌঁছতে অবশ্য আরও ভাল পারফর্ম করতে হবে। আমার বিশ্বাস, তাদের দ্বারা সেটা সম্ভব’। -ডেস্ক