Sourav Ganguly, india, bcci, rtv online

(দিনাজপুর২৪.কম) শেষ মুহূর্তে বড় কোনও অঘটন না ঘটলে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পরবর্তী সভাপতি হতে চলেছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সর্বসম্মতভাবে এই পদে নির্বাচিতে হতে চলেছেন তিনি।
আজ সোমবার মনোনয়নপত্র দাখিল করার শেষ দিন। রোববারই তা জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সৌরভ।

বোর্ডের সভাপতি পদে লড়াইটি মূলত ছিল সৌরভ ও শ্রীনিবাসন ঘনিষ্ঠ ব্রিজেশ প্যাটেলের সঙ্গে। কোনও কোনও মহলের ধারণা ছিল ব্রিজেশই শেষ পর্যন্ত সভাপতি নির্বাচিত হচ্ছেন। এনিয়ে জোরদাল লবি করাও শুরু হয়ে যায়। সেই জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন সৌরভ।

এদিকে, বিসিআইয়ের সচিব হচ্ছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ছেলে জয় শাহ। কোষাধ্যক্ষ হতে চলেছেন বিসিসিআইয়ের প্রাক্তন সভাপতি ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের ভাই অরুণ ধুমল।

অনুরাগ ঠাকুর বোর্ড প্রেসিডেন্টের পদ থেকে সরে যাওয়ার পর কোনও কোনও মহল থেকে সভাপতি পদে সৌরভের পক্ষে জোরাল দাবি ওঠে। এবার সেই দাবি পূরণ হতে পারে বলে মনে করছে ক্রিকেট মহল। ফলে ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনে এবার ‘দাদাগিরি’ যুগ শুরু হওয়া স্রেফ সময়ের অপেক্ষা বলাই যায়।

দেশটির সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ২০১৭ সালে সভাপতি পদ থেকে অনুরাগ ঠাকুরকে বহিষ্কারের পর ভারতীয় ক্রিকেট কনট্রোল বোর্ডের পরবর্তী সভাপতি হিসেবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম নিয়ে প্রবল জল্পনা শুরু হয়েছিল।

সে সময় সুনীল গাভাস্করের মতো প্রাক্তন তারকা ওই পদে ‘মহারাজ’কে দেখতে চেয়ে মুখ খুলেছিলেন। ‘সৌরভ বোর্ডের সভাপতি পদের যোগ্য ব্যক্তি’ বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। ২০১৯ সালে তার এই ইচ্ছা পুরণ হতে চলেছে।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মসনদে মহারাজের অভিষেক শুধু সময়ের অপেক্ষা বলে মত পর্যবেক্ষক মহলের। কারণ আজ সৌরভের বিরুদ্ধে কেউ আর মনোনয়ণপত্র জমা দেবেন না বলে মনে করা হচ্ছে। ফলে কোনও নির্বাচনের সম্ভাবনা নেই। -ডেস্ক