(দিনাজপুর২৪.কম) বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। রোববার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফের দ্বৈরথ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের। বুধবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হারার পর পাকিস্তানি ওপেনার ইমাম-উল-হক জানিয়েছেন, প্রতিপক্ষ হিসেবে ভারত শক্তিশালী হলেও তাদের হারাতে মরিয়া পাকিস্তান শিবির। কারণ, চার ম্যাচে ইতিমধ্যেই দু’টি হেরেছে পাকিস্তান। বৃষ্টিতে ভণ্ডুল হয়ে গেছে একটি ম্যাচ। এ বার ভারতকে হারাতে না পারলে প্রতিযোগিতা আরো কঠিন হয়ে উঠবে সরফরাজ় আহমেদের দলের কাছে।

বুধবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হারের পরে ইমাম বলেছেন, ‘‘এখন থেকে সব ম্যাচই আমাদের কাছে মরণ-বাঁচন লড়াই। মানছি ভারত কঠিন প্রতিপক্ষ, কিন্তু ওদের হারাতেই হবে।’’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘ভারত-পাক ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছি। সেটাই আমার অনুপ্রেরণা। শুনেছি ম্যাঞ্চেস্টারে প্রচুর পাকিস্তানি সমর্থক রয়েছেন। আশা করছি, তারা মাঠ ভরিয়ে দেবেন। এই ম্যাচটি নিয়ে প্রচুর উত্তেজনা থাকে কিন্তু আমাদের সে সব নিয়ে ভাবলে চলবে না। কী ভাবে জিততে পারি তা নিয়ে ভাবতে হবে।’’

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৫৩ রান করার পরে লেগস্টাম্পের বাইরের বল তাড়া করতে গিয়ে আউট হন ইমাম। তার গ্লাভস ছুঁয়ে বল চলে যায় অস্ট্রেলীয় উইকেটকিপার অ্যালেক্স ক্যারির হাতে। ইমাম বলছিলেন, ‘‘জানি না কী ভাবে আউট হলাম। উইকেটে থেকে ম্যাচটি জেতানো উচিত ছিল। বিশেষ করে বাবর আজ়ম (৩০) আউট হওয়ার পরে ম্যাচ জেতানোর দায়িত্বটা আমারই ছিল। যে বলে আউট হয়েছি সেটা একেবারেই আউট হওয়ার বল নয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধেও একই ভুল করেছিলাম।’’

পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ় আহমেদ জানিয়ে দিয়েছেন, ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে ফিল্ডিংয়ে উন্নতি করতে হবে তার দলকে। ‘‘মাঠে প্রচুর ভুল করে ফেলেছি। সব চেয়ে বেশি সমস্যা দেখা গিয়েছে আমাদের ফিল্ডিংয়ে। দেখে মনেই হচ্ছিল না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছি। ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে ফিল্ডিংয়ে উন্নতি করতেই হবে,’’ মন্তব্য তার।

সরফরাজ়কে কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে মোহাম্মদ আমিরের বোলিং। বলেছেন, ‘‘ম্যাচ থেকে একটিই প্রাপ্তি। ভারত ম্যাচের আগে উইকেটের মধ্যে রয়েছে আমির। বল সুইং করতে শুরু করলে ওর থেকে ভয়ঙ্কর বোলার খুব কমই রয়েছে। ওর বিরুদ্ধে চাপ সৃষ্টি করা অনেকটাই কঠিন। উইকেট থেকে সাহায্য পেতে শুরু করলে তো ওকে খেলাই যায় না।’’ –ডেস্ক