(দিনাজপুর২৪.কম) ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ হলেও দলকে বল হাতে ব্রেক থ্রু এনে দিচ্ছেন সৌম্য সরকার। দ্বিতীয় দিনের শেষ সেশনে তুলে নিয়েছেন দুই উইকেট। সেঞ্চুরিয়ান ল্যাথামের পর সৌম্যর শিকার হয়েছেন অভিজ্ঞ রস টেইলর। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৪০০ রান। বাংলাদেশের চেয়ে তারা ১৬৬ রানে এগিয়ে।

বিনা উইকেটে ৮৬ রানে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছিল নিউজিল্যান্ড। এদিন জুটি দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হতে থাকে। ১৬৩ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন জিত রাভাল। এরপর আগের দিন ক্যাচ দিয়ে বেচেঁ যাওয়া টম ল্যাথামও তিন অংকে পৌঁছান ১৭০ বলে। দুজনের জুটি ভাঙতেই পারছিল না টাইগার বোলাররা। অবশেষে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর বলে ১৩২ রান করা জিত রাভাল খালেদের তালুবন্দি হলে ভাঙে ২৫৪ রানের উদ্বোধনী জুটি।

অন্যপ্রান্তে দেড়শ পার করে এগিয়ে যান ল্যাথাম। এই তারকা ওপেনারকে থামান সৌম্য সরকার। তার বলে মোহাম্মদ মিঠুনের তালুবন্দি হলে থামে ল্যাথামের ২৪৮ বলে ১৬১ রানের ইনিংস। যাতে ছিল ১৭টি চার এবং ৩টি ছক্কার মার। এর সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে ৭৯ রানের জুটির অবসান হয়। এই মিডিয়াম পেসারের দ্বিতীয় শিকার হন অভিজ্ঞ রস টেইলর। ৪ রান করা টেইলরকে এলবিডাব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন সৌম্য।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ২৩৪ রানে প্রথম ইনিংস শেষ হয় বাংলাদেশের। তামিম ইকবালের সেঞ্চুরির পরেও প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ খেলেছে মাত্র ৫৯.২ ওভার। ১২৮ বলে ২১ চার এবং ১ ছক্কায় ১২৬ রানের ইনিংসটি খেলেন তামিম। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন লিটন দাস। এছাড়া সাদমান (২৪), অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ (২২), মোহাম্মদ মিঠুন (১২) এবং মেহেদী মিরাজ (১০) রান করেন। ৪৭ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছেন নেইল ওয়াগনার।-ডেস্ক