সেলিম সোহাগ (দিনাজপুর২৪.কম) আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলা পরিষদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন বর্তমান ৯ নং সাকোয়া ইউনিয়নের দ্বিতীয় বারের মত নির্বাচিত চেয়ারম্যান সায়েদ জাহাঙ্গীর হাসান সবুজ । বোদা উপজেলার সব মহলে রয়েছে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। ফলে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে তাকেই নৌকার মাঝি হিসেবে চান এলাকাবাসী। তা ছাড়া তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মনে করেন, নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হলে চেয়ারম্যান সবুজ এর বিকল্প নেই। কারণ, তিনি বোদা এলাকার মানবসেবার এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। তিনি এলাকায় একজন সাদা মনের মানুষ হিসেবে পরিচিত। তিনি বোদার দলীয় লোকজন ছাড়াও শিক্ষক, থেকে কৃষক-শ্রমিক ও হিন্দু সম্প্রদায়, সাধারণ মানুষসহ সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি। মানবদরদি এলাকায় অসহায় গরিব-দুঃখী মানুষের সেবায় সর্বদা সচেষ্ট।

তিনি সাকোয়া স্কুল থেকে এস এস সি পাশ করে বি এস সি করেন দিনাজপুর সরকারি কলেজে । ১৯৯৩-৯৪ সালে তিনি ৩ টি শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃত্ব দিয়েছেন।২০০৪ সাল থেকে ৯ নং সাকোয়া ইউনিয়নে একাধারে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আ’ লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। রংপুর বিভাগে ৩ জনের ১ জন শ্রেষ্ঠত্ব চেয়ারম্যান হিসেবে ইন্দোনেশিয়া ভ্রমন করে। আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতীক পেলে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে মনে করেন এলাকার জনগণ।

বোদা উপজেলা বেংহাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ আবু জানান আমরা উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে মাননীয় রেলমন্ত্রী মহোদয়কে সায়েদ জাহাঙ্গীর হাসান সবুজকে নৌকা প্রতীকে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছি।

প্রার্থীতা প্রসঙ্গে সায়েদ জাহাঙ্গীল হাসান সবুজ বলেন, আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান। একাধারে ছাত্র লীগ, যুবলীগ ও আওয়ামীলীগ এর দায়িত্ব পালন করে আসছি। আমি আশাবাদি বোদা উপজেলার সকল দলীয় নেতা কর্মী ও সাধারণ মানুষ আমার পাশে আছে। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বোদা উপজেলা নির্বাচনে আমাকে নৌকা প্রতিক দিলে আমি বিপুল ভোটে জয়লাভ করবো।