(দিনাজপুর২৪.কম) সন্দেহজনকভাবে প্রায় সোয়া ১৩ কোটি টাকা লেনদেনের অভিযোগে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অ্যাসিসট্যান্ট এয়ারক্রাফট মেকানিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার দুপুরে রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় মামলাটি (নম্বর-৩৬) দায়ের করা হয়। মামলার বাদী ও দুদকের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ মোরশেদ আলম জানান, মামলায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বরখাস্তকৃত অ্যাসিসট্যান্ট এয়ারক্রাফ মেকানিক মো. আনিছ উদ্দিন ভূঁইয়া ও তার স্ত্রী মিসেস লতিফা ইয়াসমিনকে আসামি করা হয়েছে। এজাহারে তাদের বিরুদ্ধে স্বর্ণ চোরাচালান ও শুল্ক ফাঁকির মাধ্যমে অর্থ অর্জনের অভিযোগও আনা হয়েছে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, আসামি আনিছ উদ্দিন ভূঁইয়া বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একজন কর্মচারী হিসেবে মাত্র ৯ হাজার ১৫০ টাকা বেতন স্কেলে চাকরি করতেন। বর্তমানে তিনি সাময়িক বরখাস্ত। চাকরির শেষ সময় পর্যন্ত আনিছ উদ্দিন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত ছিলেন। তার স্ত্রী লতিফা ইয়াসমিন একজন গৃহিণী। অথচ তারা ব্র্যাক ব্যাংকের উত্তরা শাখা ও দক্ষিণখান শাখায় ৭টি অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ১৩ কোটি ১৩ লাখ ৩৪ হাজার ৪১৭ টাকা সন্দেহজনকভাবে লেনদেন করেছেন। দুদকের অনুসন্ধানকালে অভিযুক্তরা এই লেনদেনের কোনো বৈধ উৎস দেখাতে পারেন নি। এমনকি তাদের দেওয়া রেকর্ডপত্র ও বক্তব্যেও ওই অর্থের কোনো বৈধ উৎস খুঁজে পাওয়া যায়নি। এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা স্বর্ণ চোরাচালান ও শুল্ক ফাঁকির মাধ্যমে চালিয়ে এই অর্থ অর্জন করেছেন। ওই টাকার উৎস অপরাধলব্ধ আয় দ্বারা অর্জিত হয়েছে যা মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এর সম্পৃক্ত অপরাধ। অনুসন্ধানকালে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দুদক মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এর ৪(২) ও (৩) ধারায় মামলাটি দায়ের করেছে।(ডেস্ক)