(দিনাজপুর ২৪.কম) দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম বলেছেন, গ্রামীণ দারিদ্র্র বিমোচনে ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা বৃক্ষ রোপন যথেষ্ঠ ভূমিকা রাখে। জলবায়ু পরিবর্তন জনিত বিরুপ প্রভাব মোকাবেলা ও ক্রমবর্দমান জনসংখ্যা চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দেশে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি অতি জরুরী। বর্তমানে দেশে খাদ্য স্বংয়সম্পন্ন হলেও বিশাল জনগোষ্ঠি এখনো অপুষ্টির শিকার। আমাদের দেশে মাথাপিছু ৮৫ গ্রামের স্থলে মাত্র ৩০ গ্রাম ফলের প্রাপ্যতা রয়েছে। তাই বাড়ীর আসপাশের জমিতে ফলদ, বনজ ও ঔষধী বৃক্ষ রোপন করে নিজে আর্থিক লাভবান হউন এবং পরিবেশ রক্ষা আগামী প্রজন্মের জন্য একটি সুন্দর পৃথিবী দিতে এগিয়ে আসুন।
“দিন বদলের বাংলাদেশ-ফল বৃক্ষে ভরবো দেশ” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল মঙ্গলবার গৌর-এ-শহীদ মাঠে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও সামাজিক বন বিভাগ দিনাজপুরে আয়োজনে ১০দিনব্যাপী ফলদ ও বনজ বৃক্ষ মেলা-২০১৫ উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর দিনাজপুরের উপ-পরিচালক মোঃ গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আবু রায়হান মিঞা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আউয়াল সরকার। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষকলীগ দিনাজপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাখাওয়াত হোসেন। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মমতাজ সুলতানা। উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদ্বয় বৃক্ষ মেলার  স্টোল পরিদর্শন করতে গেলে দিনাজপুর সদর উপজেলার নতুন ভূষি বন্দর এর মেসার্স কৃষি রকমারী বিতান এন্ড সীড ফার্ম এর ব্যবস্থাপক মোঃ ফরিদুল ইসলাম চলমান কৃষি ভিত্তিক কর্মসূচীর বিষয় তুলে ধরেন।