লিটন (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার ভোগনগর ইউনিয়নের কৃষ্টপুর গ্রামের মোঃ বছির উদ্দিনের পুত্র ভ্যান চালক মোঃ জাহিরুল ইসলাম গত শনিবার সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় কবিরাজহাট সংলগ্ন মুন্সিপাড়া নামক স্থানে ঢাকা গামী একটি ব্রয়লার মুরগি পরিবহনকারী  পিকাআপ সজরে এসে ধাক্কা মাড়ে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় মোঃ জাহিরুল ইসলাম প্রতিদিনের ন্যায় গত শনিবার একটি কাঠের ভাড়া নিয়ে কবিরাজহাট ছমিলে আসার পথে, পথিমধ্যে মুন্সিপাড়া নামক স্থানে ঠাকুরগাঁও থেকে ঢাকা গামী ব্রয়লার মুরগি পরিবহনকারী  পিকাআপ পিছন থেকে সজরে ধাক্কা মারে। ধাক্কা মারার সঙ্গে সঙ্গে জাহিরুল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়ক সংলগ্ন খাদে পড়ে এবং প্রচণ্ড আঘাত পায়। এলাবাসী বিকট শব্দ শনে ঘটনা স্থলে ছুটে আসে এবং ব্রয়লার মুরগি পরিবহনকারী  পিকাআপটিকে আটক করে । ঘটনা স্থলে জাহিরুলকে মূমুর্ষ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তৎক্ষনাত দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয় ঘটনা বেগতিক দেখে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। রাত আনুমানিক ১২ ঘটিকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। পিকআপ ভ্যানটি আটক করে ভোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের জিম্মায় রাখা হয়। শনিবার রাত ১২ ঘটিকায় জাহিরুল ইসলাম মৃত্যুবরণ করলে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান রবিবার বীরগঞ্জ থানায় ফোন করেন এবং বীরগঞ্জ থানা ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে রবিবার দুপুর ১.৩০ মিনিটে পিকআপটি ইউনিয়ন পরিষদ হতে বীরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসেন। এ বিষয়ে বীরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ জাঙ্গাহীর হোসেনের সাথে মোবাইলে কথা বলা হলে তিনি বলেন খবর পেয়ে আমরা পিকআপ ভ্যানটি থানায় নিয়ে আসি এবং জাহিরুল ইসলাম রংপুর মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। কিন্তু নিহতের পরিবার এখন পর্যন্ত কোন প্রকার মামলা দায়ের করেনি। নিহতের পরিবার মামলা দায়ের করলে মামলাটি নেওয়া হবে ও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।