(দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের বীরগঞ্জে দোলনার দড়ির ফাঁসে মৃত শিশু ওমর ফারুকের মা মোছাঃ নিপা খাতুন অভিযোগ করেছেন তার সন্তানের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে তার পিতা নজরুল ইসলাম (শিশুর নানা) মিথ্যাচার করেছে। শ্বশুর বাড়ির স্বজনদের সাথে সম্পর্ক নষ্ট এবং আমার স্বামীর সম্পত্তি আত্মসাত করতে এই মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছে।
সোমবার দুপুরে দিনাজপুর প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নিপা খাতুন লিখিত বক্তব্যে উপরোক্ত অভিযোগ করেছেন।
নিপা জানান, তার সন্তান ওমর ফারুক নিজ বাড়িতে লিচুর গাছে রশি দিয়ে তৈরী দোলনায় খেলার সময় রশিটি গলায় পেচিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। কিন্তু আমার পিতা নজরুল ইসলাম আমার ভাসুর, দেবর, জামাইসহ শ্বশুর বাড়ির লোকদের বিরুদ্ধে সন্তানকে হত্যার মিথ্যা অভিযোগ করেছে।
নিপা অভিযোগ করেন, আমার বিয়ের বিগত ৮ বছরের আমার পিতা কোন দিন আমাদের খোজ-খবর নেয়নি। আমার পিতা আমার সন্তানদের কোন দিন একটি বিস্কুটও দেয়নি। প্রকৃত পক্ষে আমার শ্বশুর বাড়ির স্বজনদের সাথে সুসম্পর্ক বিনষ্ট করা এবং আমার স্বামীর রেখে যাওয়া সম্পত্তি হাতিয়ে নেয়ার অসৎ উদ্দেশ্যে আমার পিতাসহ কোন কুচক্রি মহল মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছে। আমি আমার  পিতার এহেন ভুমিকার প্রতিবাদ করছি।
সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন দেবোর আবুল কাসেম, ভাতিজা জাকারিয়া, সাহেরা খাতুন,  আব্দুস সাত্তার, আব্দুল মজিদ, শিরিন আক্তার।