(দিনাজপুর২৪.কম) ছাগল বা মুরগি নয়, বিরিয়ানি বানানো হচ্ছিল বিড়ালের মাংস দিয়ে। দাম তুলনামূলকভাবে কম হওয়ায় বিক্রিও হচ্ছিল বেশ ভালই। আর এই বিরিয়ানি বানানোর ঘটনা ঘটেছে ভারতের চেন্নাইয়ের আদিবাসী অধ্যুষিত কিছু এলাকায়। চেন্নাইয়ে সাত দিন ধরে পুলিশি অভিযানে বিভিন্ন বিরিয়ানির দোকানগুলি থেকে উদ্ধার করা হয় ১২টি বিড়াল। আবাদি, পাল্লাভরম, তিরুমুল্লাইয়াভোরাম, পুম্পোজিল এবং কান্নিকাপুরমে অভিযান চালিয়ে বিড়ালগুলিকে উদ্ধার করা হয়েছে। এই সবকটি এলাকাই আদিবাসী অধ্যুষিত।

প্রথমবার বিড়াল রহস্যজনকভাবে উধাও হওয়ার অভিযোগ আসে বালাজিনগর এলাকা থেকে। এক বাসিন্দার অভিযোগ ছিল, বিগত কয়েকদিন ধরে তার ও তার প্রতিবেশীদের পোষা বিড়াল উধাও হয়ে যাচ্ছে। ক্রমে বিড়াল উধাও হওয়ার ঘটনা বাড়তে থাকে।

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, বিড়াল চুরি করছে আদিবাসীদের একাংশ। কয়েকজনকে জেরা করে জানা যায়,বিড়াল তারাই চুরি করছে। কোথায় বিক্রি করা হচ্ছে এই বিড়ালগুলিকে, সেই জেরায় উঠে আসে বিরিয়ানির দোকানগুলির নাম। গ্রেফতার করা হয়েছে কয়েকজন আদিবাসীকেও। -ডেস্ক

সূত্রঃ টাইমস অব ইন্ডিয়া।