মো, নজরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) বিরামপুর উপজেলার একইর গ্রামে দিনের বেলা বাড়িতে ঢুকে প্রতিপক্ষরা মারপিট করে ৫জনকে আহত করেছে। এসময় ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে নগদ টাকা ও মূল্যবান জিনিষপত্র লুটপাট করেছে। এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে এবং পুলিশ এক আসামীকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার (৬ আগষ্ট) দিনাজপুর কারাগারে পাঠিয়েছে।
থানার মামলা ও বাদি সূত্রে প্রকাশ, জমি-জমা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একইর গ্রামের হাসিনুর রহমান হাসুন চৌধুরী, ছেলে এনায়েত চৌধুরী, ভাতিজা হুমায়ুন চৌধুরীসহ ১৪/১৫জনকে সাথে নিয়ে একইর গ্রামের মোসলেম উদ্দিন (নালকুু) চৌধুরীর বাড়িতে রবিবার বিকেলে হামলা শুরু করে। এসময় ঘরে শয়নরত অবস্থায় মোসলেম উদ্দিন (নালকুু) চৌধুরীকে পশু কুড়াল দিয়ে মাথায় কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম ও ছেলে আলমগীরের হাত ভেঙ্গে দিয়েছে এবং নালকু চৌধুরীর স্ত্রী, পুত্রবধু, শিশু নাতিকে মারপিট ও নারীদের শ্লীলতাহানী ঘটায়। এঘটনায় গুরুত্বর আহত একজনকে দিনাজপুর এম, আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও একজনকে বিরামপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, এজাহারভুক্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং অন্য আসামীদের ধরার চেষ্টা চলছে।