মোঃ নজরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) বিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী গোপালপুর গ্রামে গভীর রাতে বাবা-মায়ের মাঝ থেকে ২ বছর আট মাস বয়সের শিশু পুত্রকে তুলে নিয়ে দুর্বৃত্তরা জবাই করে শিশুর লাশ পাট ক্ষেতে ফেলে গেছে।
নিহত শিশুর পিতা আকতারুজ্জামান শাহীন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে তার স্ত্রী রোজিনা আকতারসহ দুই বছর আট মাস বয়সের শিশুপুত্র আশিক রানাকে নিয়ে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। গরমের কারণে ঘরের দরজা খোলা রাখেন। গভীর রাতে স্বামী-স্ত্রীর মাঝখান থেকে কে বা কারা শিশু পুত্র আশিককে একটি মোবাইল ফোনসহ তুলে নিয়ে যায়। রাত সাড়ে তিনটার দিকে পিতা মাতা টের পেয়ে চিৎকার দিলে প্রতিবেশিরা শিশুর খোঁজ শুরু করেন। এসময় চুরি যাওয়া মোবাইল ফোন থেকে শিশুর মা রোজিনার ফোনে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবী করা হয়। খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে শনিবার (২৯ জুন) সকালে বাড়ির পাশে পাট ক্ষেতে শিশুর জবাই করা লাশ দেখতে পায়। দুর্বুত্তরা লাশ থেকে শিশুটির দুই হাত কেটে নিয়ে গেছে। থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়েছে।
বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, এব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।