দিনাজপুর জেলার কিছু সংখ্যক তরুণদের নিয়ে গঠিত ‘স্বপ্ন-নাফিউ ফাউন্ডেশন’ এর উদ্যোগে প্রতি বছর আদিবাসী, সামর্থহীন, এতিম শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপরকরণ বিতরণ করে। ২০০৯ সালে বিরল থানার ৪ নং শহর গ্রামের কিছু সংখ্যক তরুণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে সমাজ সেবা মুলক কাজের লক্ষে স্বপ্ন-নাফিউ ফাউন্ডেশন নামে একটি সংগঠন গঠন করে। শুধু শহরাঞ্চলের কিছু তরুণ নয় গ্রামের তরুণরাও যে সমাজের কল্যাণের জন্য আপডেট চিন্তা করে তার অনন্য উদাহরণ স্বপ্ন-নাফিউ ফাউন্ডেশন। স্বপ্ন-নাফিউ ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাব্বির আহমাদকে চলমান প্রজেক্ট নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন” আমাদের সমাজে অনেক শিক্ষার্থী আছে যাদের খুব ইচ্ছা নতুন বইয়ের সাথে নতুন ব্যাগ নিয়ে স্কুলে যাবে কিন্তু সামর্থ নেই এমন অনেকেরই এই ছোট্ট স্বপ্নটি পূরণ হয় না, আমরা তাদের এই স্বপ্নটি পূরণ করতেই বছরের শুরুতেই তাদের হাতে শিক্ষা উপকরণ তুলে দিতে চাই”। প্রজেক্ট বাস্তবায়ন সম্পর্কে স্বপ্ন-নাফিউ ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি নাঈম ইসলামকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন ” আমরা শিক্ষা উপকরণ বলতে একজন শিক্ষার্থীকে ব্যাগ সহ সারা বছরের জন্য কলম,খাতা ও সাথে ছোটদের ড্রয়িং বক্স আর বড়দের জন্য জ্যামিতি বক্স দেওয়ার পরিকল্পনা করেছি, যাতে একজন শিক্ষার্থীর সারা বছরের চাহিদা পূরণ হয়। এর জন্য আমরা একটি ফান্ড গঠন করেছি ও কালেকশন করতেছি মানুষদের প্রজেক্ট বুঝানোর মাধ্যমে। বেশীর ভাগ কালেকশন সোস্যাল মিডিয়া ভিত্তিক। কালেকশন শেষে খ্রীস্ট নববর্ষে দিনে বিতরণের সম্ভাব্য পরিকল্পনা রয়েছে। প্রজেক্টের ফান্ডিং সম্পর্কে স্বপ্ন-নাফিউ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আদিল হোসেনকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ” আমাদের সংগঠনের বেশী ভাগ সদস্যই শিক্ষার্থী তাই আমাদের সদস্যদের থেকে পর্যাপ্ত কালেকশন করা কঠিন হয়ে যায়। তাই যারা সামর্থবান তাদেরকে এগিয়ে আসার আহবান করছি। গত বছর আমরা ২০ জনের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেছি এবার আমরা ৫০ জনের মাঝে বিতরণ করতে চাই, যদি সমাজের সামর্থবানরা এগিয়ে আসে তাহলে ইনশাআল্লাহ আমরা প্রজেক্টটি সফল ভাবে করতে পারব”।