(দিনাজপুর২৪.কম) মার্কিন বিমানসংস্থার এক বিমানের যাত্রী বিমান কর্মীকে কামড় দেওয়ার অভিযোগে উত্তর ক্যারোলিনার ফেডারেল লকআপে রয়েছে টুন লন সেন নামের এক যাত্রি। ‌বৃহস্পতিবার শার্লট ডগলাস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এই ঘটনাটি ঘটে। বিমান কর্মীকে কামড়িয়ে বিমান থেকে ঝাপ দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেছিল ওই যাত্রী।

ফেডারেল এয়ার মার্শাল জানান, বৃহস্পতিবার মার্কিন বিমানসংস্থার ওই বিমানটি সবেমাত্র দরজা বন্ধ করেছে এবং যাত্রীদের সিটবেল্ট পড়ার নির্দেশ দিয়ে বিমানটি ওড়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। ঠিক সেই সময় ২২ বছরের টুন লন সেন নিজের আসন থেকে উঠে বিমানের প্রধান দরজা জোর করে খোলার চেষ্টা করে। এক বিমান কর্মী ও দু’‌জন যাত্রী টুন লনকে বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। বিমান কর্মী টুন লনকে তার আসনে বসানোর চেষ্টা করতে গিয়ে টুন লন তাকে কামড়ে দেয় এবং বিমানের অন্য দিকের দরজা খোলার চেষ্টা করে। কোনওমতে একটি দরজা খুলতে পেরে টুন লন আচমকাই বিমান থেকে ঝাঁপ দেয়।

টুন লনের এমন অদ্ভুত আচরণে বিমানের অন্য যাত্রীদের হয়রানি হয়। মার্কিন বিমানসংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়, টুন লন সেনকে বিমানবন্দরের দুই কর্মী আটক করে রাখে এবং তাকে ফেডারেল লকআপে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার জন্য বিমান যাত্রীরা গন্তব্যস্থলে এক থেকে দেড় ঘন্টা দেরিতে পৌঁছায়।

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, বিমান কর্মীদের কাজে বাঁধা দেওয়ার জন্য টুন লনের ২০ বছরের সাজা হতে পারে। অন্যদিকে টুন লন সিনের আইনজীবী জানান, টুন লন ইংলিশ না জানার জন্য বিমান কর্মীরা তার কথা বুঝতে পারেননি। -ডেস্ক