এবি পার্টির কেন্দ্রীয় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দিচ্ছেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। ছবি : সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) বিএনপি ও আওয়ামী লীগকে ‘অটো প্রমোশনের’ দল বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। আজ শুক্রবার এবি পার্টির নেতৃত্ব পর্যায়ের কেন্দ্রীয় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘যারা নতুন ধারার রাজনীতি করতে চান তাদের দিনকে দিন বলতে শিখতে হবে। রাজনীতিতে পরিবর্তনের জন্য নিজেদের মধ্যে বিতর্ক করতে হবে, সাধারণ জনগণের জন্য কাজ করার চ্যালেঞ্জ নিতে হবে।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চে সঠিক বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি জোরে জয় বাংলা বলেছেন, পরে আস্তে করে পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলেছেন। একজন রাজনৈতিক নেতা পরিস্থিতি ও জনগণের দাবিকে প্রাধান্য দেবেন এটাই স্বাভাবিক। বঙ্গবন্ধু শাহ আজিজ, ফজলুল কাদের চৌধুরী এদের খোঁজ-খবর নিতেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সব অটো প্রমোশনের পার্টি। দলে কোনো গণতন্ত্র নেই। এবি পার্টিকে গণতান্ত্রিক হবার চেষ্টা করতে হবে।’

এবি পার্টির আহ্বায়ক সাবেক সচিব এএফএম সোলায়মান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ধানমন্ডি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র অডিটরিয়ামে দিনব্যাপী কর্মশালা শুরু হয়। অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক রাষ্ট্রবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. দিলারা চৌধুরী বলেন, ‘দেশের নাগরিক সমাজের কোনো নিরপেক্ষ অবস্থান নেই। সবাই দলান্ধ এবং প্রতিক্রিয়াশীল। একপক্ষ ড. জিয়ার পক্ষে বিবৃতি দেয় কিন্তু তারা সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল অপহরণ ও সীমান্ত পার করিয়ে এনে তাকে বন্দী রাখার ব্যাপারে কোনো কথা বলে না, নিশ্চুপ থাকে।’

সভাপতির বক্তব্যে সোলায়মান চৌধুরী বলেন, ‘এবি পার্টি তার নেতাদের রাজনৈতিক প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্ব দেবে। তৃণমূলে জনপ্রিয় নেতাদের দলে অন্তর্ভুক্ত করে দেশ গড়ার রাজনীতির জন্য যোগ্য করে গড়ে তোলা হবে।’

কর্মশালায় আরও বক্তব্য দেন সাংবাদিক নোমান ইরফান, প্রফেসর ডা. মেজর (অবসরপ্রাপ্ত) আবদুল ওহাব মিনার, এরশাদ হোসেন সাজু, অ্যাডভোকেট গোলাম ফারুক, মজিবুর রহমান মঞ্জু, ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, ব্যারিস্টার জুবায়ের আহমেদ ভুঁইয়া, বিএম নাজমুল হক, সাজ্জাদ হোসেন প্রমুখ। -ডেস্ক