(দিনাজপুর২৪.কম) বিএনপির ভিশন ২০৩০ এর সমালোচনা করে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া রূপকল্প নিয়ে আসছেন জাতির সামনে। তারা স্ট্যান্ডবাজির রাজনীতি শুরু করেছেন। এ রূপকল্প আর একটা নতুন ধাপ্পাবাজি। তাদের সন্ত্রাসী চরিত্র এখনো পাল্টায়নি।

জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বুধবার কবি চন্দ্রাবতী ফাউন্ডেশন আয়োজিত নিয়াজউদ্দিন পাশার স্মরণ সভায় এসব কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ সহায়ক সরকারের স্বপ্ন, স্বপ্নই থেকে যাবে। নির্বাচন হবে শেখ হাসিনার অধীনে। এবং সেই নির্বাচনে অংশ নেওয়া বিএনপির জন্য মঙ্গলজনক হবে। ’

খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপির সহায়ক সরকারের স্বপ্ন, স্বপ্নই থেকে যাবে। এখন বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অবস্থান থেকে সরে এসে, সহায়ক সরকারের নামে এ দুইটি নতুন শব্দ যুক্ত করেছে।

তিনি বলেন, ‘যারা মনে করছেন, ২০১৯ সালের আগে নির্বাচন হবে। তারা আহাম্মকের স্বর্গে বাস করছেন। ২০১৮ সালের শেষ দিকে অথবা ২০১৯ সালের প্রথম দিকে নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচন হবে সংবিধান মোতাবেক। ’

কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজোয়ান আহমেদ তৌফিকের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিম প্রমুখ। -ডেস্ক