(দিনাজপুর২৪.কম) আন্দোলন করে বিএনপি খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবে- বিএনপির এমন হুমকির জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তারা যদি পারে আন্দোলন করে তাদের চেয়ারপারসনকে মুক্ত করে নিক। যদি সাহস থাকে, সক্ষমতা থাকে তারা আন্দোলন করুক। আমাদের কোনো সমস্যা নেই। গত দশ বছরে দশ মিনিটের আন্দোলন আমরা দেখতে পেলাম না। তাদের আন্দোলন কবে দেখতে পাবো এটা আমাদের জানা নেই।

আজ শনিবার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন করে তারা খালেদা জিয়াকে মুক্ত করুক। তারা আন্দোলনের কথা তো বারবারই বলে বেড়াচ্ছে। এখনও পুরানো কথার পুনরাবৃত্তি শুনতে পাচ্ছি। তাদের যদি সেই সক্ষমতা থাকে, সাহস থাকে, আন্দোলন করে দেখাক। ১০ বছরে তো ১০ মিনিটের একটা আন্দোলনও দেখলাম না।

তিনি বলেন, তাদের গণতন্ত্র স্ববিরোধিতায় পরিপূর্ণ। আন্দোলন কী করবে? মির্জা ফখরুল নিজেই নির্বাচনে জয়ী হয়ে সংসদে যোগ দিলেন না, অথচ সেই আসনে পুনর্নির্বাচনে প্রার্থী দিলেন, এটা কোন গণতন্ত্র?

তিনি বলেন, তাদের পাঁচজন সংসদে যোগ দিলেন, সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচিত হলেন শপথ নিলেন, কিন্তু দলের মহাসচিব সংসদে যোগ দিলেন না, এই দ্বৈত নীতি তাদের দলে। এই গণতন্ত্র হাস্যকর।

বিএনপির জাতীয় কাউন্সিলের প্রস্তুতির বিষয়ে কাদের বলেন, বিএনপির যেভাবে জন্ম, বিএনপির যেভাবে বিকাশ, বিএনপি তাদের গঠনতন্ত্র থেকে ৭ ধারা বাদ দিয়ে প্রমাণ করেছে, তারা আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ দল। তারা এই ৭ ধারা থেকে সরে যাবে, এমন আশা করা দুঃস্বপ্নের নামান্তর।

সংবাদ স‌ম্মেল‌নে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হা‌নিফ, জাহাঙ্গীর ক‌বির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন না‌ছিম, খা‌লিদ মাহমুদ চৌধুরী, এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক  ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-দপ্তর ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এস এম কামাল প্রমুখ।-ডেস্ক