(দিনাজপুর২৪.কম) ‘দেশের ইতিহাসে জাতীয় পার্টির অষ্টম জাতীয় সম্মেলনই  সবচেয়ে সফল। এ সম্মেলনের মাধ্যমেই জাতীয় পার্টি ঘুরে দাঁড়াবে।’ দেশের মানুষের কাছে এ বার্তা পৌঁছে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। শনিবার (১৪ মে) রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তন চলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে দেয়া বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টির বয়স ৩০ বছর ৫ মাস অতিক্রম হল। এরমধ্যে ৮টি সম্মেলন পার করেছে। দেশের ইতিহাসে কোনো রাজনৈতিক দল এরকম সফল সম্মেলন করতে পারেনি।’

তিনি আরো বলেন, ‘জাতীয় পার্টি ছাড়া এ দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। দেশের উন্নয়নে এই সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় পার্টি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। আপনারা সারাদেশে এই বার্তা পৌছে দিন।

এর আগে সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন এরশাদ। এসময় শিল্পীরা বাদ্য-যন্ত্র বাজিয়ে দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এরপর বিভিন্ন ধর্মীয় গ্রন্থ পাঠ করার পর বিভিন্ন সময়ে মৃত্যুবরণকারী দলের নেতা-কর্মীদের জন্য ১ মিনিট নিরবতা পালনসহ শোক প্রস্তাব করা হয়।

সম্মেলনের মঞ্চে দলটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারসহ প্রেসিডিয়ামের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত রয়েছেন। সম্মেলনের প্রথম পর্ব  শেষ হবে দুপুর ২টায়। এরপর মিলনায়তনে কাউন্সিলরদের নিয়ে মূল সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় পর্বে জাতীয় পার্টির ৭১টি সাংগঠনিক জেলা থেকে আসা ১৯ হাজার ৭শ’ কাউন্সিলর অংশ নেবেন। ডেলিগেট থাকবেন আরো প্রায় ৫০ হাজার।

সকাল থেকেই জাপার নেতা-কর্মীরা রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন, প্লাকার্ডসহ মিছিলসহ সম্মেলন স্থলে উপস্থিত হতে শুরু করেন। তাদের মুখরিত স্লোগানে আশে-পাশে উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। -ডেস্ক