oshiriya-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) দক্ষিণী সিনেমায় বেশ পরিচিত নাম ঐশ্বরিয়া অর্জুন। সুন্দরী অভিনেত্রী হিসেবে তার ভালোই সুনাম রয়েছে। তার পরিবারেও ফিল্মি পরিবেশ। তামিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ঐশ্বরিয়ার পরিবারের যথেষ্টই নামডাক আছে। ঐশ্বরিয়ার বাবা অর্জুন তামিল ছবির নামী পরিচালক শুধু নন, একজন প্রযোজকও।  এখন ঐশ্বরিয়া অর্জুন এমন কথা মুখে এনেছেন যে তা শুনে সবাই অবাক। ঐশ্বরিয়া এখন তার বাবার পরিচালিত এবং প্রযোজিত ‘কাথালিন পোনভিথিযেইল’ ছবিতে নায়িকার ভূমিকায় রয়েছেন। তার বিপরীতে রয়েছেন নতুন নায়ক শান্থান। এই ছবির মধ্যে দিয়ে তামিল ছবিতে অভিষেক ঘটছে এই নায়কের।

রোম্যান্টিক এই ছবিতে একাধিক ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে হয়েছে ঐশ্বরিয়া অর্জুন ও শান্থানকে। ঐশ্বরিয়া জানিয়েছেন, এই দৃশ্যগুলো তাকে তার বাবা অর্জুনের সামনেই শুট করতে হয়েছে। বলতে গেলে, ঐশ্বরিয়া অর্জুন ও শান্থান চিত্রনাট্য অনুযায়ী যখন ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে শুট করেছেন, তখন সেখানে ক্যামেরায় রীতমতো চোখ লাগিয়ে তা জরিপ করেছেন অর্জুন।

ঐশ্বরিয়ার দাবি, ‘লজ্জা লাগছিল, অস্বস্তি হচ্ছিল বাবাকে সামনে দেখে। কিন্তু, বাবার মধ্যে এক মুহূর্তের জন্য কোনো বিচলিত ভাব লক্ষ্য করিনি।’ শুটিংয়ের পর বাড়ি ফিরেও বাবার মুখোমুখি হয়েছেন ঐশ্বরিয়া। বাবা-মেয়ের নানা খুনসুটি হয়েছে, কিন্তু এক বারের জন্য মেয়ের সামনে নাকি সিনেমার ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় নিয়ে কথা তোলেননি পরিচালক অর্জুন। ঐশ্বরিয়া অর্জুনের দাবি, সেটে গেলে তিনি যেন বাবাকে হারিয়ে ফেলেন।

কারণ, সেটে তার সামনে যিনি হাজির থাকেন, তিনি তখন শুধুই পরিচালক অর্জুন। নিজের মেয়ে যে তার চোখের সামনে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করছেন, তা নিয়ে নাকি কোনো পিতাসুলভ মনোভাব প্রকাশ করেন না অর্জুন। ঐশ্বরিয়া অর্জুনের এই অকপট কথা এখন ভাইরাল হয়ে গেছে ইন্টারনেটে।