(দিনাজপুর২৪.কম) অ্যাশেজ সিরিজের দল থেকে বেশ কয়েকজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড় অবসর নেওয়ায় অনেকটা অনভিজ্ঞ দল নিয়েই বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া। অসিদের ঘোষিত ১৫ সদস্যের দলে রয়েছে ২ জন নতুন মুখ। এ ছাড়া ১০টির বেশি টেস্ট খেলা খেলোয়াড় রয়েছেন মাত্র ৫ জন।  প্রায় নতুন আঙ্গিকের ১টি দল নিয়ে ২ টেস্টের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসছে স্টিভেন স্মিথের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়া দল। স্বভাবতই প্রশ্ন জাগে, বাংলাদেশ সফরটাকে অস্ট্রেলিয়া দল পরীক্ষা নিরীক্ষার একটি উপলক্ষ্য হিসেবে দেখছে কিনা।
তবে এমন কোনও সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দিলেন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ, ‘অবশ্যই না, প্রত্যেকটি টেস্টই আমরা জিততে চাই, প্রত্যেকটা সিরিজই আমরা জেতার জন্য খেলি, বাংলাদেশ সফরও এর ব্যতিক্রম নয়।’
বাংলাদেশের মাটিতে খেলা তাই কঠিন হবে বলেই মনে করছেন স্মিথ, ‘বাংলাদেশে খেলাটা বেশ কঠিন হবে। নিজেদের আঙ্গিনায় ওরা অনেক ভালো ক্রিকেট খেলেছে। এটা কঠিন একটা সফর হতে যাচ্ছে। তবে আশা করি আমরা ভালো প্রস্তুতি নিয়ে কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেব এবং সফল একটা সফর করব।’
এশিয়াতে অস্ট্রেলিয়ার সাম্প্রতিক টেস্ট রেকর্ড মোটেই সুখকর নয়। এশিয়াতে খেলা শেষ ১৩ টেস্টে মাত্র একটিতে জিতেছে অসিরা। ২০১১ সালে গলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একমাত্র জয়টি পায় তারা। এশিয়াতে অস্ট্রেলিয়া শেষবার টেস্ট সিরিজ খেলতে এসেছিল ২০১৩ সালে, ভারতের মাটিতে। সেবার ৪ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল মাইকেল ক্লার্কের অস্ট্রেলিয়া। -ডেস্ক