এম, এ সালাম, হেড অব নিউজ (দিনাজপুর২৪.কম) আজ বুধবার বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুর স্টেশন বিল্ডিং এ সংকেত বিভাগের কর্মরত শ্রী ক্ষিতিশ চন্দ্র রায় ও মোঃ জামাল উদ্দীন কে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। সরকারী চাকুরী বিধি মতে, চাকুরীর মেয়াদ শেষ হতেই অবসর নিতেই হবে। এটাই চাকুরীর নীতিমালা। সংকেত বিভাগের দিনাজপুরে কর্মরত শ্রী ক্ষিতিশ চন্দ্র রায় ও মোঃ জামাল উদ্দীন অবসর গ্রহন করেন। অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বলেন, মানুষ জন্ম নিলে যেমন মৃর্ত্যুবরণ করতে হয়, সরকারী চাকুরী বিধানে অবসর গ্রহন করা বাধ্যতামুলক। অবসর গ্রহনের পর চাকুরীজীবি মানুষ প্রায় একাকীত্ব হয়ে পড়ে। চাকুরী করা কালীন সময়ে নিয়মনীতি মেনে চলতে হয় অসংখ্য মানুষের সঙ্গে কথা হয়, পরিচয় হয় ও মতবিনিময় হয়। অবসর গ্রহন করার পর সে কদর আর থাকে না। আমরা কর্মরত সকলেই একযোগে কাজ করেছি অবসর গ্রহন করার পরও আমাদের সর্ম্পক, ভালোবাসার কোন কমতি হবে না বলে আমরা মনে করি। প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী বাংলাদেশ রেলওয়ের দিনাজপুর প্রদীপ কুমার সরকার। উর্দ্ধতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী ওয়ার্কস বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুর মোঃ তারিকুল ইসলাম। উর্দ্ধতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী/সংকেত, বাংলাদেশ রেলওয়ে লালমনিরহাট মোঃ ইকবাল হোসেন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী/সংকেত, বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুর মোঃ মনোয়ার হোসেন। স্টেশন মাষ্টার নার্গিস প্রামানিক। দিনাজপুর রেল স্টেশন সুপারিটেনডেন্ট এবিএম জিয়াউর রহমান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দিনাজপুর সংকেত বিভাগের এম এস, বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুর ও বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিকলীগ দিনাজপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি মোঃ মাজেদুল ইসলাম (মাজেদ)।